অপারেশন থিয়েটারে বসেই পরীক্ষা দিচ্ছেন তিনি! ছবি ভাইরাল

অপারেশন থিয়েটারে বসে সন্তানের জন্ম দেওয়ার আগে কেউ পরীক্ষা দিতে ব্যস্ত, এমন দৃশ্য আগে দেখেছেন কি? এক দিকে চিকিত্সকরা অস্ত্রোপচারের প্রস্তুতি নিচ্ছেন, অন্য দিকে প্রসূতি চটপট নিজের পরীক্ষা শেষ করতে ব্যস্ত। এমন একটি ছবিই এখন রীতিমতো ভাইরাল হয়ে গেছে টুইটারে। প্রায় ২৮ হাজার শেয়ার আর প্রায় দেড় লক্ষ লাইক পড়েছে ছবিটিতে। সংখ্যাটা এখনও বেড়ে চলেছে।

 

দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট-এ প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, ছবিটি যুক্তরাষ্ট্রের কানসাসের নায়জিয়া থমাসের। তিনি জনসন কাউন্টি কমিউনিটি কলেজের সাইকোলজির দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী। ঘটনাচক্রে সাইকোলজির শেষ পরীক্ষার পরের দিনই তাঁর ডেলিভারির ডেট দিয়েছিলেন চিকিত্সকরা। ১২ ডিসেম্বর শেষ পরীক্ষা আর ১৩ ডিসেম্বর ডেলিভারি। কিন্তু নায়জিয়ার শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় ১২ ডিসেম্বর অর্থাৎ শেষ পরীক্ষার দিনেই হাসপাতালে ভর্তি হতে হয় তাকে।

 

তার আত্মীয় স্বজনরা সকলে ধরেই নিয়েছিলেন একটা বছর নষ্ট হল নায়জিয়ার। কারণ, শেষ পরীক্ষায় তো আর দিতেই পারবেন না তিনি। কিন্তু হাল ছাড়েননি নায়জিয়া। মনস্থির করেন, অপারেশন থিয়েটারে বসেই অনলাইনে শেষ পরীক্ষা দেবেন তিনি। যেমন ভাবা তেমনি কাজ! বাড়িতে আর চিকিত্সকদের সঙ্গে কথা বলে অপারেশন থিয়েটারেই আনিয়ে নেন ল্যাপটপ, বইপত্র। প্রসব যন্ত্রণা নিয়েই নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে পরীক্ষা শেষ করেই সন্তান প্রসবের জন্য তৈরি হন তিনি।
ফলাফল?

কলেজের রেজাল্ট প্রকাশিত হতে এখনও দেরি আছে। তবে সাংঘাতিক মনের জোরে ভর করে অপারেশন থিয়েটারে বসে যে পরীক্ষা নায়জিয়া সে দিন দিয়েছিলেন তাঁর ফলাফল বেশ ভাল। তিনি ও তাঁর সন্তান সুস্থ আছেন, এ কথা নিজেই জানিয়েছেন নায়জিয়া। আনন্দবাজার।

your add hare

Comments are closed.

     আরো খবর

Our Like Page