আমাকে মধুরী দীক্ষিতের ডুপ্লিকেট বলা হতো : নিকি

মাধুরী দীক্ষিতের মতো দেখতে বলিউডের অভিনেত্রী নিকি আনেজা টেলিভিশন শো ‘ইশক গুনাহ’ এর মাধ্যমে কামব্যাক করেছেন। মাধুরী দীক্ষিতের মতো দেখতে বলে এই অভিনেত্রী সংবাদ শিরোনামে ছিলেন।

২৬ সেপ্টেম্বর, ১৯৭২ সালে মুম্বাইয়ে জন্ম হয়েছিল নিকির। ২০০২ সালে সোনী ওয়ালিয়া-এর সাথে তাঁর বিয়ে হয়। সেই বছরই তিনি তাঁর স্বামীর সাথে আমেরিকায় চলে যান। ১৯৯৪ সালে প্রথম চলচ্চিত্রটি ছিল মিস্টার আজাদ, যেখানে তিনি পুলিশে অফিসার সালুর ভূমিকায় ছিলেন। ১৯৯৫ সালে তিনি টিভি সিরিয়াল ‘বাত বান জায়’ তে কাজ করেছেন।

 

নিকি সম্প্রতি একটি সাক্ষাত্কারে তাঁর জীবনের সম্পর্কে বহু কথা বলেছেন। নিকি বলেছেন, ১৯৯২ সালে আমি একটি মডেলিং শোতে অংশগ্রহণ করেছিলাম, যার নাম মিস ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি। সেই সময় আমি কলেজে ছিলাম, শো এর গ্রুমিং এর জন্য কোরিয়া পাঠানো হয়। আমি সেকেন্ড রানার আপ ছিলাম।

তিনি বলেন, সেখানে থেকে আমার যাত্রা শুরু। যাইহোক, আমি কখনো অভিনয় করতে চাইনি, আমি একজন পাইলট হতে চেয়েছিলাম। আরও প্রশিক্ষণের জন্য টেক্সাস যেতে চেয়েছিলাম, কিন্তু বাবা আর্থিক দিক থেকে সাহায্য করতে পারেননি।

নিকি বলেন, একদিন আমার কাছে পাহলাজ নিহালানি র ফোন আসে এবং তিনি আমাকে চলচ্চিত্রে অভিনয় করার প্রস্তাব দিয়েছিলেন। কিন্তু আমার বাবা না করে দেন। কারণ তিনি এই ফিল্মি জগতের অংশ ছিলেন। তাঁর মতে সেই জায়গা ভালো নয়। কিন্তু আমি বাবাকে বলেছিলাম একটা চেষ্টা করার কথা। প্রথম সিনেমা থেকেই আমাকে মধুরী দীক্ষিতের ডুপ্লিকেট বলা হতো।

নিকি আরও বলেন, বাবার মৃত্যুর পর নিজেকে অসুরক্ষিত বোধ করতে শুরু করি। ইন্ডাস্ট্রি থেকে কাস্টিং কাউচের বহু ঘটনা আসতে থাকতো। বাবা সাথেও ছিলেন না। কিছু খারাপ হওয়ার আগে আমি অভিনয় ছেড়ে দিই।

your add hare

Comments are closed.

     আরো খবর

Our Like Page