থার্টি ফার্স্টের পার্টিতে উৎসাহ নেই শ্রীলেখা-শুভশ্রীদের

২০১৭ সালটা শেষ হতে কয়েকটা দিনের অপেক্ষা। তারপরই শুরু এক আনকোরা নতুন বছর। ইংরেজি নতুন বছরকে বরণ করতে থার্টি ফার্স্ট নিয়ে চারপাশে যখন প্রচুর প্ল্যান, তুমুল উন্মাদনা তখন টলিউডের অধিকাংশ চাইছেন নিরালা, নিভৃতে পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাতে।

শ্রীলেখা: দিনটিকে ঘিরে এখনও কোনো প্ল্যান নেই। আমার পার্টি-সার্টি খুব একটা পছন্দ নয়। আমার মেয়ে এখন ওর বাবার সঙ্গে বাইরে বেড়াতে গেছে। থার্টি ফার্স্টে ফিরবে। ফার্স্ট জানুয়ারিটা সবাই মিলে একসঙ্গে কাটাব।

 

রজতাভ দত্ত : প্রতি বছর ডিসেম্বরের ২১ তারিখ থেকে ৩১ তারিখ পর্যন্ত আমি বাইরে কোথাও বেড়াতে যাই। ফার্স্ট জানুয়ারিতে কলকাতাতেই থাকি। এ বছর শুটিং ছিল বলে পুজোর পর ঘুরে নিয়েছি। বছরের প্রথম দিন ফ্যামিলির সঙ্গে বাড়িতেই সময় কাটাব।

মিমি : অন্যান্য বার ফার্স্ট জানুয়ারিতে পুরীতে জগন্নাথদেবের দর্শন করতে যাই। এ বছর মনে হচ্ছে যাওয়া হবে না। এবার বাড়িতেই পরিবারের সঙ্গে থাকব।

 

ঋদ্ধিমা: থার্টি ফার্স্ট নাইটে ফ্যামিলির সবার সঙ্গে জমিয়ে পার্টি করব। তবে এক তারিখ কোথাও যাওয়া হবে না। আসলে ওই দিন গৌরব (চক্রবর্তী) খুব ব্যস্ত থাকবে। ওদের ফ্যামিলির একটা নাটকের গ্রুপ আছে। প্রতিবছরই ও ফার্স্ট জানুয়ারিতে নাটকে অভিনয় করে। এবছরও ব্যাক টু ব্যাক দুটো নাটককে অভিনয় করবে।

গৌরব চট্টোপাধ্যায়: নিউ ইয়ারে সে রকম কোনো প্ল্যান নেই। তবে থার্টি ফার্স্ট নাইটটা আমরা খুব এনজয় করি। ফ্যামিলির সবাই ওই পার্টিতে থাকে।

 

শুভশ্রী: ওই দিন বাবা-মার সঙ্গে সময় কাটাবো বলে ভেবে রেখেছি। এছাড়া আমার আর কোনো প্ল্যান নেই।

সূত্র : কলকাতা ২৪x৭

your add hare

Comments are closed.

     আরো খবর

Our Like Page