শরীরে রোগ প্রতিরোধে মাশরুমের উপকারিতা

নিউজ ডেস্ক- মাশরুম খেতে খুবই মজা! মাশরুমে পেনিসিলিন নামক অ্যান্টিবায়োটিক থাকে যা মানুষের জন্য বেশ উপকারী। প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় মাশরুম রাখা উচিত। তবে বুনো জায়গায় উৎপন্ন মাশরুম অবশ্যই গ্রহণ করা নিষেধ। আপনি যদি ভালো করে না জানেন যে, কোন মাশরুম খাওয়ার উপযোগী আর কোনটা নয়, তাহলে কিনবেন না। শরীরে রোগ প্রতিরোধ মাশরুমের উপকারিতা-

১) অ্যানিমিয়ার রোগীদের রক্তে আয়রনের পরিমাণ খুব কম হয়ে যায়। এর ফলে মানসিক অবসাদ, মাথার যন্ত্রণা এবং হজমের সমস্যা দেখা দেয়। মাশরুমে প্রচুর পরিমাণে আয়রন থাকে। যা অ্যানিমিয়ার সমস্যা দূর করে।

২) মাশরুমে খুব কম পরিমানে কোলেস্টেরল, ফ্যাট এবং কার্বোহাইড্রেট রয়েছে। মাশরুমে যে ফাইবার থাকে, তা আমাদের শীররে কোলেস্টেরলের মাত্র কম রাখতে সাহায্য করে। এছাড়া, যে কোলেস্টেরল হজম হয়ে যায়, তা ক্ষয় করতেও সাহায্য করে।

৩) স্তন ক্যানসার এবং প্রস্টেট ক্যানসার প্রতিরোধ করতে মাশরুমের কোনও তুলনাই নেই।

৪) প্রোটিন , ভিটামিন এবং মিনারেলে ভর্তি মাশরুম ডায়াবেটিক রোগীদের জন্য খুবই উপকারী। এতে প্রচুর পরিমাণে পানি এবং ফাইবার থাকে।

৫) প্রচুর পরিমাণে ক্যালশিয়াম থাকার জন্য মাশরুম আমাদের হাড়ের শক্তি বাড়াতে সাহায্য করে। গাঁটের ব্যথা কমাতে এবং হাড়ের বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধ করতে মাশরুমের জুড়ি মেলা ভার।

৬) সব্জিতে ভিটামিন ডি পাওয়া এখন খুবই দুষ্কর। মাশরুমে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ডি রয়েছে। তাই শরীরে ভিটামিন ডি-এর ঘাটতি পূরণে যখনই সময় পাবেন, মাশরুম খান। আমাদের শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় মাশরুম।

৭) রক্তচাপের ভারসাম্য বজায় রেখে হার্ট অ্যাটাক, স্ট্রোক প্রভৃতি প্রতিরোধ করে মাশরুম। ওজন কমিয়ে পেশীবহুল শরীর তৈরি করতে সাহায্য করে মাশরুম।

your add hare

Comments are closed.

     আরো খবর

Our Like Page