সংসারে ছোট হওয়ার সুবিধা

নিউজ ডেস্ক- সংসারে ছোট সন্তানদের প্রায়ই আক্ষেপের সুরে বলতে শোনা যায়, কেন তারা বড় সন্তান হিসেবে জন্ম নেননি। কারণ ছোট হওয়ায় সবসময় শাসনের মধ্যে থাকতে হয়। বাবা-মা তো বটেই, বড় ভাই-বোনদেরও শাসনে থাকতে হয় তাদের। কিন্তু মুদ্রার উল্টো পিটও তো থাকে। সংসারে ছোট হওয়ার অসংখ্য সুযোগ-সুবিধা থাকে। কিন্তু সেসবে নজর কম ফেরানোর কারণেই এসব আক্ষেপ জোরালো হয়ে উঠে।

ছোট হওয়ার সবচেয়ে বড় সুবিধা- চাপমুক্ত থাকা। সংসারে বড় সন্তানদের ছোটদের তুলনায় বেশি কড়া অনুশাসনের মধ্যে দিয়ে যেতে হয়। বাবা-মা বলেই দেন, যাই করো ছোটরা তোমাদের অনুসরণ করে। সুতরাং সাধু সাবধান। তাই বড়রা খুব কমই সীমা পার করার সুযোগ বা সাহস করেন। অদৃশ্য একটি জাল তাদের পরিসর ছোট করে রাখে। যেটা ছোটদের ওপর নেই বললেই চলে।

যে কোনো সমস্যায়, ভালো-মন্দে কিংবা যেটা বাবা-মাকে বলা যায় না সেটা বড় ভাই-বোনকে বলা যায়। পরিবারেই ছোটরা বন্ধু পেয়ে যাচ্ছে। কিন্তু বড়দের এমন সুযোগ কম। যদিও বড় হওয়ার সুবাধে বাবা-মায়ের সঙ্গে বড় সন্তানদের সম্পর্কটা একটু বন্ধুত্বপূর্ণই থাকে। কিন্তু বড়-ভাইবোনের ছায়াটা তো একেবারেই অন্যরকম। একটির সঙ্গে আরেকটি মেলানো যাবে না।

সন্তানদের বড় করার ক্ষেত্রে আপনার বাবা-মা শুরুতে যেসব ভুল করেছেন, সেটি পরে সেটা কমে আসে। বড় ভাই-বোনদের সঙ্গে কোনো ঝামেলা হলে, বাবা-মা কিন্তু বড়দেরই শাসন করেন। এটাও একটা বাড়তি সুবিধা।

বাবা-মার পাশাপাশি বড়দের কাছ থেকে নানা উপহার পাচ্ছেন। পাশাপাশি বড়দের ব্যবহৃত-অব্যবহৃত দ্রব্যাদি ব্যবহার করছেন। বড়রা কিন্তু সে সুবিধা পায় না। সুতরাং ছোট হওয়ায় আপনার কিন্তু খুশিই হওয়া উচিত। আক্ষেপ বন্ধ করুন।

your add hare

Comments are closed.

     আরো খবর

Our Like Page