সবজি ও ফলের জীবাণু দূর করার কিছু ঘরোয়া উপায়

নিউজ ডেস্ক- বর্তমান সময়ে বাজার থেকে কেনা সবজিতে বিভিন্ন রাসায়নিক এবং কীটনাশক থাকে যা আমাদের জন্য খুব ক্ষতিকর। তাই সবিজি কেনার ক্ষেত্রে আমাদের সচেতনতার শেষ নেই। এমনকি অনেকে বেছে বেছে অর্গানিক সবজি বা ফল কেনেন। কিন্তু এগুলোতেও থাকতে পারে ক্ষতিকর উপাদান।

বিশেষ করে যেসব ফল বা সবজি খোসাসহ খাওয়া হয়, সেগুলো ভালোভাবে পরিষ্কার করে নেওয়া দরকার। অন্যদিকে, খোসা ছাড়িয়ে খাওয়া হয় যেসব ফল (যেমন আম) এগুলোকেও ভালোভাবে ধোয়া জরুরী কারণ কাটার সময়ে ভেতরে ময়লা চলে যেতে পারে।

তবে এ সমস্যার সমাধান আছে। এসব ফল ও সবজি পরিষ্কারের জন্য আপনি তৈরি করে নিতে পারেন ঘরোয়া ক্লিনার স্প্রে। সেখানে একেবারেই ঘরোয়া কিছু উপাদান ব্যবহার করা হয় যা ময়লার পাশাপাশি কীটনাশক দূর করতেও উপকারী। জেনে নিন এমন কিছু প্রণালী।

১) বেরি ওয়াশ

যা যা লাগবে
– ৪ কাপ পানি
– ১/২ টেবিল চামচ সাদা ভিনেগার
এই দুইটি উপকরণ একটি বাটিতে মিশিয়ে নিন। এতে স্ট্রবেরি, আঙ্গুর, জাম এ জাতীয় ফল ভিজিয়ে রাখুন। কিন্তু ৫ মিনিটের বেশি সময় ভিজিয়ে রাখবেন না। উঠিয়ে ভালো করে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। ফ্রিজে রাখার আগে শুকিয়ে নিন।

২) সল্ট ওয়াশ

যা যা লাগবে
– বড় এক বাটি পানি
– ৪ টেবিল চামচ লবণ
– অর্ধেকটা লেবুর রস
সব উপকরণ বাটিতে মিশিয়ে নিন। এরপর এতে সবজি ভিজিয়ে রাখুন কয়েক মিনিট। এরপর উঠিয়ে ধুয়ে নিন।

৩) ভিনেগার ওয়াশ

যা যা লাগবে
– ৩ কাপ পানি
– ১ কাপ ভিনেগার
– ১ টেবিল চামচ লবণ
আগের মতোই একটি বড় বাটিতে সব উপকরণ মিশিয়ে কয়েক মিনিট ভিজিয়ে রাখুন সবজি। এরপর ধুয়ে নিন।
অনেক সময়ে শাক, বাঁধাকপি, ফুলকপি, ব্রকোলি, ধনেপাতায় পোকা থাকে। ভিনেগার এসব পোকা দির করে। আর আমাশার ব্যাকটেরিয়ার মত ক্ষতিকর জীবাণু ধ্বংসে কাজ করে লবণ। এই দুইটি পদ্ধতি এক্ষেত্রে উপকারি। ধুয়ে নিয়ে এরপর ভালো করে শুকিয়ে ফ্রিজে রাখুন।

৪) ফল ও সবজি পরিষ্কারের স্প্রে

যা যা লাগবে
– দেড় থেকে দুই কাপ পানি
– ২ টেবিল চামচ সাদা ভিনেগার
– ২ টেবিল চামচ লেবুর রস
– ১০ ফোঁটা গ্রেপফ্রুট এক্সট্রাক্ট ( এটা ইচ্ছে হলে দিতে পারেন)
সব উপকরণ মিশিয়ে স্প্রে বোতলে নিয়ে রাখুন। মাশরুম ছাড়া অন্যান্য সবজি ও ফলে স্প্রে করুন, কয়েক মিনিট রেখে ভালো করে ঘষে ধুয়ে ফেলুন।

your add hare

Comments are closed.

     আরো খবর

Our Like Page