গাড়ির এসি হতে পারে ক্যান্সারের কারণ

নিউজ ডেস্ক- কাচবন্ধ গাড়ি যদি রোদে পার্ক করানো যাতে এবং বাইরের তাপমাত্রা যদি ১৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসের বেশি হয় তাহলে ভিতরে ২-৪ হাজার মিলিগ্রাম বেঞ্জিন জমা হয়। গাড়িতে বসার সঙ্গে সঙ্গে এসি অন করে দিলে ওই জমা বেঞ্জিনই বের হয়ে শ্বাসপ্রশ্বাসের সঙ্গে আমাদের শরীরে ঢোকে, যা আমাদের সহনক্ষমতার ৪০ গুণ বেশি। দীর্ঘদিন ধরে শরীরে বেঞ্জিন ঢোকার প্রভাব মারাত্মক।

এর ফলে অস্থিমজ্জার কর্মক্ষমতা কমে। লোহিত কণিকার উৎপাদন কম হয়। রক্তস্বল্পতা দেখা দিতে পারে। অ্যান্টিবডি তৈরির ক্ষমতা কমিয়ে দেয়। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে। ঋতুচক্র অনিয়মিত হতে পারে। লিউকোমিয়া বা রক্তের ক্যান্সার হতে পারে।

হঠাৎ শরীরে বেশি পরিমাণ বেঞ্জিন ঢুকে গেলে হৃতযন্ত্র কাজ বন্ধ করে দিয়ে মৃত্যু পর্যন্ত ঘটাতে পারে। তাই বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বন্ধ গাড়ি খুলে ঢোকার পরেই এসি চালাবেন না। এবং এসি চালানোর পর অন্তত ১০ মিনিট কাচ নামিয়ে রাখুন। যাতে জমে থাকা বেঞ্জিন বেরিয়ে যায়।

Comments are closed.

     আরো খবর

Our Like Page