ম্যান ইউ-কে হারিয়ে লিগ টেবিলের শীর্ষে ম্যানচেস্টার সিটি

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে ২-১ গোলের ব্যবধানে হারিয়ে লিগ টেবিলের শীর্ষে উঠে এল ম্যানচেস্টার সিটি৷ ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধে ৮৪ মিনিটে পরপর দুটি শট বাঁচিয়ে সিটির লিড অক্ষত রেখে দলকে জয় এনে দেন গোলরক্ষক এডারসেন৷

এর আগে পেপ গুয়ার্দিওয়ালার দলের হয়ে গোল দুটি করেন ডেভিড সিলভা ও ওটামেন্ডি৷ ম্যান ইউ’র হয়ে একমাত্র গোল ব়্যাশফোর্ডের৷ এই জয়ের ফলে প্রিমিয়র লিগে টানা ১৪ ম্যাচ জিতে নজির গড়ল ম্যাঞ্চেস্টার সিটি৷

এর আগে ২০০২ মৌশুমে টানা ১৪ ম্যাচ জিতে ইতিহাসের পাতায় নাম লিখিয়েছিল আর্সেনাল৷ সেই রেকর্ডেই এবার থাবা বসাল ম্যান সিটি৷ প্রিমিয়র লিগের ইতিহাসে কোনও মরশুমে টানা ১৪ ম্যাচ জিতে আর্সেনালের সঙ্গে যুগ্মভাবে শীর্ষস্থানে উঠে এল গুয়ার্দিওয়ালার ছেলেরা।

 

রবিরার ওল্ড ট্র্যাফোর্ডের ধুন্ধুমার ম্যানেস্টার ডার্বিতে প্রথমার্ধে ৪৩ মিনিটে ডেভিড সিলভার গোলে এগিয়ে যায় সিটি৷ কেভিন ডি ব্রুইনের কর্নার থেকে গোল করেন সিলভা৷ এরপর প্রথমার্ধের ইনজুরি টাইমে গোল করে ম্যান ইউকে ম্যাচে ফেরান ব়্যাশফোর্ড৷ যদিও দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই ফের গোল হজম করে পিছিয়ে পড়ে ম্যান ইউ৷ ওটামেন্ডির গোলে ৫৪ মিনিটে স্কোরলাইন ২-১ করে ম্যান সিটি৷ দুই পক্ষই এরপর আক্রমণে একাধিক সুযোগ তৈরি করলেও কাক্ষিত গোল পায়নি৷

 

ম্যাচের শেষ পর্যায়ে পরপর দু’বার ইউনাইটেডের আক্রমণ প্রতিহত করে লিড ধরে রাখেন সিটির গোলরক্ষক এডারসন৷ ৮৪ মিনিটে প্রথমে লুকাকুর শট প্রতিহত করেন এডারসন, এরপর জটলা থেকে ফিরতি বলে ফের শট নেন মাটা৷ এবারও শরীর ছুঁয়ে বল বাইরে ফাটিয়ে তিকাঠির নীচে অপ্রতিরোদ্ধ হয়ে ওঠেন সিটির গোলকিপার৷

your add hare

Comments are closed.

     আরো খবর

Our Like Page