পর্নোগ্রাফিতে মাত্রাতিরিক্ত আসক্তি; হতে পারে অপূরণীয় ক্ষতি!

তথ্য প্রযুক্তির উৎকর্ষতা ও ইন্টারনেটের কল্যাণে গোটা বিশ্ব এখন হাতের মুঠোয়। কম্পিউটার অথবা স্মার্টফোনের একটি ক্লিকেই আপনি ঘুরে আসতে পারেন বিশ্বের যে কোনও স্থানে। প্রবেশ করতে পারেন পর্নোগ্রাফির সাইটেও। কিন্তু পর্নোগ্রাফির প্রতি আসক্তি আপনার জীবনে নিয়ে আসতে পারে বিরূপ প্রভাব এমনকি অনাগ্রহী হয়ে উঠতে পারেন স্বাভাবিক যৌন জীবনে।

পর্নোগ্রাফির প্রভাব ব্যক্তিবিশেষের জন্য অন্যদের থেকে ভিন্ন হতে পারে। যা স্বাভাবিক যৌনক্রিয়া ও যৌন সম্পর্কের উপর প্রভাব ফেলতে পারে।

 

আমেরিকার ব্রিগহ্যাম ইয়ং বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণায় দাবী করা হয়েছে, আত্মবিশ্বাসের অভাব, নিজেকে ছোট মনে করা এবং প্রেমের সম্পর্ক থেকে দূরে সরিয়ে রাখার কারণ পর্নোগ্রাফিতে মাত্রাতিরিক্ত আসক্তি।

আমেরিকার ৩৫০ জন পুরুষ এবং ৩৩৬ জন মহিলার ওপর এই গবেষণা চালানো হয়েছিল।

 

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক নাথান লিওনহার্ট গবেষণায় জানান, পর্নোগ্রাফিতে আসক্ত ব্যক্তিরা নিজেদের নিঃস্ব মনে করেন। তারা বিশ্বাস করেন কোন মূল্যই নেই তাদের। অতিরিক্ত পর্ন দেখার ফলে এ নেতিবাচক মনোভাব তৈরি হয়।

এর ফলে রোম্যান্টিকতা থেকে নিজেদের সরিয়ে নিয়ে আসছেন তারা। কোনও রকম সম্পর্ক তো দূরের কথা, সামান্য ডেটিংয়েও অনীহা তৈরি হচ্ছে তাদের।

your add hare

Comments are closed.

     আরো খবর

Our Like Page