হানাদার বাহিনীর সাথে সম্মুখ যুদ্ধ দিবস উপলক্ষ্যে স্বৃতিচারন ও দোয়া অনুষ্ঠান

কুমারখালীঃ ১৯৭১ সালে পাক হানাদার বাহিনীর সাথে কুষ্টিয়া কুমারখালী উপজেলার ধলনগর,প্রতাপুর,করিমপুর ও কুলশীবাসা নামক স্থানে সম্মুখ যুদ্ধ সংগঠিত হওয়াই ৬ই ডিসেম্বর যুদ্ধ দিবস পালিত হয়েছে।

এই উপলক্ষ্যে বুধবার সকাল ১১ টায় উপজেলার চাদপুর ইউনিয়ন মুক্তিযোদ্ধা বৃন্দ কর্তৃক কুলশীবাসা সরকারি মাঠ প্রাঙ্গনে স্বৃতিচারন,সম্মুখ যুদ্ধের গল্প বলা দোয়া অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

সম্মুখ যুদ্ধের অধিনায়ক,যুদ্ধাকালিন কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা জাহিদ হোসেন জাফর এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন ৭৮,কুষ্টিয়া-০৪(কুমারখালী ও খোকসা)আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রউফ।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদীন,যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা নাসির উদ্দিন,যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা নুর মহম্মদ জাপান,যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা আবুল কালাম।

এসময় উপস্থিত ছিলেন কুমারখালী উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা ইউনিটের ভারপ্রাপ্ত কমান্ডার মোকাদ্দেস হোসেন,বীর মুক্তিযোদ্ধা লুৎফর রহমান,বীর মুক্তিযোদ্ধা শামসুল আলম,কুমারখালী উপজেলা আওয়ামীলগের সহ-সভাপতি মৃধা গোলাম কুদ্দুস,কুমারখালী উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক আলতাফ মাহমুদ,কুষ্টিয়া জেলা পরিষদের প্রশাসক মফিজ উদ্দিন,চাদপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রাশেদুজ্জামান তুষার,উপজেলা ও ইউনয়নের প্রায় দুইশত মুক্তিযোদ্ধা সহ প্রমুখ।

অনুষ্ঠানের শুরুতে ১৯৭১ সালের ৬ই ডিসেম্বর সম্মুখ যুদ্ধের স্বৃতিচারনে ফুল প্রদান করেন সংসদ সদস্য আব্দুর রউফ,যুদ্ধাকালিন কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা জাহিদ হোসেন জাফর,যদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদীন সহ উপস্থিত সকল বীর মুক্তিযোদ্ধা।

অনুষ্ঠান শেষ পর্বে শহীদদের আত্মার মাগফিরাত ও শান্তি কামনা করে দোয়া অনুষ্ঠিত হয় এবং মুক্তিযোদ্ধাদের মাঝে উপহার সামগ্রী ও মুক্তিযোদ্ধা সহ উপস্থিত সবার মাঝে তবারক বিতরন করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

     আরো খবর

Our Like Page