বিধিনিষেধের প্রজ্ঞাপন: ট্রেনের টিকিট বিক্রির নতুন সিদ্ধান্ত আরোপ

করোনাভাইরাসের নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমক্রিন বিস্তার রোধে আগামীকাল (১২ জানুয়ারি) থেকে ট্রেনের মোট আসনের অর্ধেক টিকিট বিক্রি হবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ রেলওয়ে। তবে এর মধ্যে ৫০ শতাংশের অর্ধেক টিকিট কাউন্টারে এবং অর্ধেক টিকিট মিলবে অনলাইনে।

মঙ্গলবার বাংলাদেশ রেলওয়ের উপপরিচালক (টিসি) মো. নাহিদ হাসান খান স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। দেশে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমক্রিন এর কারণে গণপরিবহণ, লঞ্চ, ট্রেনে অর্ধেক যাত্রী নিয়ে চলাচলের নির্দেশনা দিয়ে সরকার। এর আগে আগামী ১৫ জানুয়ারির অগ্রিম টিকিট বিক্রি সাময়িক সময়ের জন্য বন্ধ রয়েছে। সাধারণত পাঁচ দিন আগে থেকে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি করা হয়। এর আগের বিধিনিষেধের সময় ৫০ শতাংশ টিকিটের অর্ধেক অনলাইনে ও বাকি টিকিট কাউন্টারে বিক্রি করেছিল রেলওয়ে।

এতে বলা হয়, করোনাভাইরাসজনিত রোগের (কোভিড-১৯) বিস্তাররোধে সার্বিক কার্যাবলি/চলাচলে সরকার কর্তৃক বিধিনিষেধ আরোপ করে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। প্রজ্ঞাপনে ট্রেন, বাস ও লঞ্চে সক্ষমতার অর্ধেক যাত্রী নিয়ে চলাচল করতে পারবে মর্মে নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে।

এমতাবস্থায় যাত্রীবাহী ট্রেন পরিচালনার ক্ষেত্রে রেলওয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারী ও যাত্রীদের স্বাস্থ্যগত নিরাপত্তার স্বার্থে শারীরিক দূরত্ব ও মাস্ক পরিধান নিশ্চিতকরণের মাধ্যমে আন্তঃনগর ট্রেনের টিকিট বিক্রয়ে নিম্নে বর্ণিত সংশোধনী আনা হলো। অর্ধেক যাত্রী পরিবহনে সফটওয়্যার আপডেট করছে রেল

অর্ধেক যাত্রী পরিবহনের নির্দেশনার পর সফটওয়্যার আপডেট করছে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। মঙ্গলবার (১১ জানুয়ারি) রেলওয়ে এক বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, আগামী ১৩ জানুয়ারি থেকে ট্রেনে ৫০ শতাংশ যাত্রী পরিবহনের নির্দেশনা বাস্তবায়নের জন্য আমাদের টিকেটিং সফটওয়্যার আপডেট করার কাজ চলছে। যার কারণে আগামী ১৫ জানুয়ারির অগ্রিম টিকেট বিক্রি সাময়িক সময়ের জন্য বন্ধ রয়েছে।

সাধারণত ৫ দিন আগে থেকে ট্রেনের অগ্রিম টিকেট বিক্রি করা হয়। এর আগের বিধিনিষেধের সময় ৫০ শতাংশ টিকেটের অর্ধেক অনলাইনে ও বাকি টিকেট কাউন্টারে বিক্রি করেছিল রেলওয়ে। তবে ভাড়া বাড়েনি।

করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন রোধে আগামী ১৩ জানুয়ারি থেকে ১১ দফা নির্দেশনা দিয়েছে সরকার। যার মধ্যে গণপরিবহনে অর্ধেক যাত্রী পরিবহনের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

Back to top button