প্রোটিয়া দুই ওপেনারকে সাজঘরে পাঠালেন খালেদ-মিরাজ

অবশেষে উইকেটের দেখা পেল বাংলাদেশ। ওয়ানডে গতিতে ব্যাট করতে থাকা প্রোটিয়া অধিনায়ক ওপেনার ডিল এলগারকে ফিরিয়ে ব্রেকথ্রু আনলেন খালেদ আহমেদ। ৩৪তম ওভারে লিটন দাসের হাতে ক্যাচ দিয়ে ব্যক্তিগত ৬৭ রানে বিদায় নেন এলগার। পরের ওভারেই থিতু হয়ে থাকা আরেক ওপেনার সারেল এরউইকে ফেরালেন মেহেদি হাসান মিরাজ। ১০২ বলে ৪১ রান করে সাজঘরে ফেরেন এই ওপেনার।

এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ৩৫ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার সংগ্রহ ১১৯ রান।
এর আগে দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজের প্রথমটিতে বৃহস্পতিবার (৩১ মার্চ) ডারবানের কিংসমেডে টসে জিতে ফিল্ডিং বেছে নেন বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক মুমিনুল হক। এই টেস্টে বাংলাদেশ একাদশে নেই ওপেনার তামিম ইকবাল। পেটের পীড়ায় ভুগছেন তামিম। পেসার শরীফুল ইসলামও নেই। তার পরিবর্তে খালেদ আহমেদকে নেওয়া হয়েছে।

ব্যাটিংয়ে নেমে শুরু থেকেই আগ্রাসী ভঙ্গীতে ব্যাট চালাতে থাকেন দুই দুই প্রোটিয়া ওপেনার ডিন এলগার ও সারেল এরউই। এর মধ্যে অধিনায়ক এলগার মাত্র ৬০ বলে ফিফটি তুলে নেন। প্রথম সেশনের ২৫ ওভারেই দুজনে মিলে তুলে ফেলেছেন ৯৫ রান। সেশন শেষে ঠিক ৬০ রানেই অপরাজিত আছেন এলগার। এরউই অপরাজিত আছেন ৩২ রানে। তারা রান তুলেছেন ওভারপিছু ৩.৮০ করে! দক্ষিণ আফ্রিকা একাদশ: ডিন এলগার (অধিনায়ক), সারেল এরউই, কিগান পিটারসেন, টেম্বা বাভুমা, রায়ান রিকেলটন, কাইল ভেরেইন (উইকেটরক্ষক), উইয়ান মুল্ডার, কেশব মহারাজ, সাইমন হার্মার, লিজাড উইলিয়ামস, ডুয়ান অলিভিয়ার।

বাংলাদেশ একাদশ: সাদমান ইসলাম, মাহমুদুল হাসান জয়, মুমিনুল হক (অধিনায়ক), নাজমুল হোসেন শান্ত, মুশফিকুর রহিম, লিটন দাস (উইকেটরক্ষক), ইয়াসির আলী, মেহেদি হাসান, তাসকিন আহমেদ, খালেদ আহমেদ, এবাদত হোসেন।

Back to top button