পশ্চিমাদের শত শত বিমান জব্দ করলেন পুতিন

ইউক্রেনে অভিযানের ফলে রাশিয়ান বিভিন্ন সংস্থা ও ধনকুবেরদের ওপর একের পর এক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে পশ্চিমা দেশগুলো। এতে আর্থিক প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি রাশিয়ার এয়ারলাইনস চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হয়। তারই ধারাবাহিকতায় এবার যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপের লিজিং কোম্পানিগুলোর শত শত বিমান জব্দ করছে রাশিয়া। বৃহস্পতিবার (১৭ মার্চ) সিএনএনের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

ক্রেমলিন এক বিবৃতিতে জানায়, নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে সোমবার রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন একটি আইনে স্বাক্ষর করেছেন। ফলে রাশিয়ার এয়ারলাইনস বিদেশি কোম্পানির লিজ নেওয়া বিমানগুলোর নিবন্ধন করতে পারবে। নতুন আইনের কারণে রাশিয়ান এয়ারলাইনস বিদেশি কোম্পানি থেকে লিজ নেওয়া বিমানগুলো রেখে দিতে পারবে ও অভ্যন্তরীণ রুটে এগুলো ফ্লাইট পরিচালনা করবে। তাছাড়া রুশ সরকারের অনুমোদন ছাড়া এ বিমানগুলো ফিরে পাবে না বিদেশি কোম্পানি।

এদিকে, নিরাপদে বিমান চালাতে যেসব খুচরা যন্ত্রাংশের প্রয়োজন হয়, রুশ এয়ারলাইনসকে তার সরবরাহ ইতোমধ্যেই বন্ধ করে দিয়েছে এয়ারবাস (ইএডিএসএফ) ও বোয়িং (বিএ) এর মতো পশ্চিমা বিমান কোম্পানিগুলো। এভিয়েশন অ্যানালিটিক্স ফার্ম সিরিয়ামের দেওয়া তথ্য অনুসারে, রাশিয়ার বিমান সংস্থাগুলোর কাছে ৩০৫টি এয়ারবাস জেট এবং ৩৩২টি বোয়িং জেট রয়েছে। এ ছাড়া পশ্চিমা বিমান কোম্পানি যেমন- বম্বার্ডিয়ার, এম্ব্রেয়ার এবং এটিআর নির্মিত ৮৩টি আঞ্চলিক জেটও রয়েছে রাশিয়ায়। এর বিপরীতে, রুশ বিমান সংস্থার সক্রিয় বহরে মাত্র ১৪৪টি বিমান রয়েছে, যেগুলো রাশিয়ায় নির্মিত।

Back to top button