রাশিয়ার পক্ষে যুদ্ধে যেতে চান অনেক বাংলাদেশি, দাবি দূতাবাসের

ইউক্রেনের বিরুদ্ধে রাশিয়ার বিশেষ সামরিক অভিযানে যোগ দিতে চান অনেক বাংলাদেশি নাগরিক। তবে ঢাকার রাশিয়ান দূতাবাস রাজি নয়। দূতাবাস থেকে বৃহস্পতিবার (৭ এপ্রিল) এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে।

ডোনেটস্ক পিপলস রিপাবলিক এবং লুগানস্ক পিপলস রিপাবলিককে সাহায্য ও ইউক্রেনের রুশ-ভাষী জনগোষ্ঠীকে রক্ষা করার লক্ষ্যে মস্কো বিশেষ সামরিক অভিযান শুরু করেছে। এতে রাশিয়ার পক্ষে যুদ্ধে বিদেশি স্বেচ্ছাসেবকদের নিয়োগের অনুমোদন দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। তারপর থেকে বাংলাদেশে রাশিয়ার দূতাবাস বাংলাদেশি নাগরিকদের কাছ থেকে অসংখ্য চিঠি পাচ্ছে, যারা ইউক্রেন এবং ডনবাসের মুক্তি আন্দোলনে অংশ নিতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন।

দূতাবাস জানায়, এটা আনন্দের বিষয় যে অনেক বাংলাদেশি পূর্ব ইউরোপে ন্যাটোকে প্রত্যাখ্যান এবং ইউক্রেনে নব্য-নাৎসিবাদের অবসান ঘটাতে রাশিয়ান সরকারের ন্যায়সঙ্গত আকাঙ্ক্ষাকে স্বীকার করেন। আমরা বাংলাদেশি জনগণের এই মনোভাবকে সাধুবাদ জানাই। রাশিয়ান সশস্ত্র বাহিনী সফলভাবে নির্ধারিত লক্ষ্য এবং উদ্দেশ্য অর্জনের সঙ্গে পরিকল্পনা অনুযায়ী বিশেষ সামরিক অভিযান চালাচ্ছে। অতএব অপারেশনে যোগ দিতে বাংলাদেশ থেকে স্বেচ্ছাসেবকদের প্রয়োজন নেই।

Back to top button