লালপুরে পদ্মা থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন, হুমকির মুখে তীর রক্ষা বাঁধ

লালপুর (নাটোর) প্রতিনিধিঃ নাটোরের লালপুরে নবীনগর এলাকায় রাতের অন্ধকারে পদ্মা নদী থেকে অবৈধ ভাবে বালু-ভারাট উত্তোলন করা হচ্ছে।এতে হুমকির মুখে পড়েছে তীর রক্ষা বাঁধ সহ কয়েকটি গ্রাম। সংশ্লিষ্ট সকলকে ম্যানেজ করেই এই বালু-ভরটা উত্তলোন করা হচ্ছে বলে অভিযোগ এলাকাবাসির।
জানা যায় রাতের বেলায় ওই এলাকার তীর রক্ষা বাঁধের নিচেই এস্কেবেটর ( ভেকু) দিয়ে বালু- ভরাট উত্তোলন করছে রিজভী কনসট্রাকশন নামের একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। স্থানীয়রা জানায়, স্থানিয় ও সংশ্লিষ্ট প্রশাসনকে ম্যানেজ করে বিগত বেশ কয়েকদিন ধরে প্রতি রাতে শত শত গাড়ি বালু – ভরাট উত্তোলন করে নিয়ে যাচ্ছে। এতে করে সরকার রাজস্ব আয় থেকে বঞ্চিত হচ্ছে অন্যদিকে বালু-ভরাট বিক্রয় করে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে ভূমিদস্যুরা। এবিষয়ে ঈশ্বরদী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সেলিম রেজা জানান,নদীর তীর রক্ষা বাধেঁর নিচ থেকে বালু-ভরাট উত্তোলন করা হচ্ছে ফলে বর্ষা মৌসুমে বাঁধ ধ্বসে যাওয়ার আংশকা আছে, আর বাঁধ ধ্বসে গেলে শত শত বাড়ী ঘর নদী গর্ভে বিলীন হয়ে যাবে। বালু-ভরাট উত্তোলন কাজের তদারককারী উজ্জ্বল জানান, আমি শুধু দেখভাল করছি এর বেশি কিছু নয়, এ বিষয়ে রুবেল ভাই সব কছু তার সাথে যোগাযোগ করুন। এবিষয়ে রিজভী কনাকটসনের প্রকৌশলী রুবেল জানান,বালু-ভরাট উত্তোলন করার জন্য সরকারী অনুমতি নেই। তবে কিভাবে এ কাজ করছেন এমন প্রশ্নের জবাব দিতে তিনি আপরাকতা প্রকাশ করেন।
এবিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার শামীমা সুলতান জানান, এর আগে খবর পেয়ে পুলিশ পাঠিয়ে বালু-ভরাট উত্তোলন বন্ধ করা হয়েছিল, আবার বালু-ভরাট উত্তোলন শুরু হয়েছে? বিষয়টি দেখছি।

Back to top button