পরকীয়া সন্দেহে ঘুমন্ত স্বামীর গোপনাঙ্গ কাটলেন স্ত্রী

সাতক্ষীরার পাটকেলঘাটায় অন্য নারীর সাথে পরকীয়া সম্পর্কের সন্দেহের জের ধরে স্ত্রী কর্তৃক স্বামীর গোপনাঙ্গ কাটার অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার ভোর রাত ২টার দিকে তালা উপজেলার পাটকেলঘাটা থানার ভারশা গ্রামে ঘটনাটি ঘটে। এ ঘটনার পর স্ত্রী শারমিন বেগমকে (২৩) আটক করেছে পুলিশ।

স্বামী মেহেদি হাসান বর্তমানে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। মেহেদি হাসান (২৮) পাটকেলঘাটা থানার ভারশা গ্রামের নওয়াব আলী শেখের ছেলে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য সাইফুল ইসলাম জানান, গত সাত বছর আগে ভারশা গ্রামের নওয়াব আলী শেখের ছেলে মেহেদির সাথে বকশিয়া গ্রামের সাজ্জাদ মোড়লের কন্যা শারমিনের বিয়ে হয়। বর্তমানে তাদের ঘরে ৪ বছর বয়সী একটি পুত্র সন্তান রয়েছে। বিয়ের পর থেকে তাদের স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে প্রায়ই পরকীয়া সম্পর্ক নিয়ে ঝগড়া বিবাদ লেগে থাকতো। সোমবার সন্ধ্যায় তার স্ত্রী তাকে কৌশলে একসাথে ঘুমানোর জন্য বলে। অতপর রাতে ঘুমিয়ে পড়লে ধারালো অস্ত্র দিয়ে স্বামীর গোপনাঙ্গ কোটে নেয় স্ত্রী শারমিন।
পাটকেলঘাটা থানার ওসি (তদন্ত) বাবলুর রহমান খান জানান, এ ঘটনার পর শারমিনকে আটক করা হয়েছে।

Back to top button