আল-আকসা মসজিদে ইসরায়েলি হামলার তীব্র নিন্দা জানাল সৌদি

দখলকৃত পূর্ব জেরুজালেমের আল আকসা মসজিদে ইসরায়েলি বাহিনীর অভিযানে ফিলিস্তিনি আহতের সংখ্যা ১৫০ জন ছাড়িয়েছে। একইসঙ্গে বহু ফিলিস্তিনিকে আটকের খবর পাওয়া গেছে। গতকাল শুক্রবার জুমার দিনে নিরস্ত্র মুসল্লিদের ওপর এই হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়েছে সৌদি আরব। খবর আরব নিউজের।

সৌদি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ইসরায়েলের এ ধরনের হামলা পবিত্র আকসা মসজিদের পবিত্রতা লঙ্ঘনের শামিল এবং মুসলিম জাতির কাছে এর তাৎপর্যের ওপর নির্লজ্জ হামলার শামিল। তা ছাড়া আন্তর্জাতিক রেগুলেশন ও চুক্তির লঙ্ঘন বলে মনে করে দেশটি।

শান্তি পরিস্থিতি লঙ্ঘনের অভিযোগে ইসরায়েলকে দায়ী করে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে এগিয়ে আসার আহ্বান জানায় সৌদি আরব। দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, ফিলিস্তিনের জনগণ, তাদের ভূমি ও পবিত্র স্থানগুলোতে শান্তি পুনঃস্থাপনে চলমান অপরাধ ও শান্তি প্রক্রিয়া লঙ্ঘনের জন্য ইসরায়েল দায়ী থাকবে। এ ছাড়াও মধ্যপ্রাচ্যে শান্তিপ্রচেষ্টা পুনরুজ্জীবিত করার প্রতি গুরুত্বারোপের কথা বলা হয়।

সম্প্রতি এ ধরনের সহিংস হামলা ক্রমাগত বৃদ্ধি পাওয়ায় জেরুজালেমকে নতুন করে সংঘাতের দিকে ঢেলে দেবে বলে মনে করা হচ্ছে। এর আগে গত বছর রমজান মাসে মসজিদে আকসা চত্বরে ইসরায়েলি বাহিনী ও হামাসের মধ্যে তীব্র সংঘাত হয়েছিল। তখন মিসর, জর্দান ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যস্থতায় দীর্ঘ সংলাপের পর ১১ দিন চলা এ সংঘর্ষ বন্ধ হয়েছিল।

এদিকে, মুসলিম বিশ্বের সর্ববৃহৎ সংস্থা অর্গানাইজেশন অব ইসলামিক কো-অপারেশন (ওআইসি) রমজান মাসে মসজিদে আকসায় মুসল্লিদের ওপর হামলার ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছে। এ ধরনের ভয়াবহ হামলা বেড়ে যাওয়াকে মুসলিম জাতি এবং আন্তর্জাতিক রেগুলেশনের স্পষ্ট লঙ্ঘন বলে মনে করছে সংস্থাটি। ফিলিস্তিনি জনগণের নিরাপত্তা এবং এই অঞ্চলে চরমপন্থা, ধর্মীয় সংঘাত ও অস্থিতিশীলতা সৃষ্টিকারী ইসরায়েলের এ ধরনের হামলা প্রতিরোধে যথাযথ পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান জানানো হয় জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদকে।

Back to top button