ঈমান ধরে টান দিলে বুকে ব্যথা লাগে: প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব

ঈমানের সঙ্গে কাজ করার পর ঈমান ধরে টান দিলে বুকে ব্যথা লাগে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিব ড. আহমদ কায়কাউস। গতকাল শনিবার (১৬ এপ্রিল) ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআই আয়োজিত ‘এক্সপোর্ট চ্যালেঞ্জেস অব বাংলাদেশ আফটার গ্রাজুয়েশন ফ্রম এলডিসি স্ট্যাটাস: অপশনস ফর দ্য প্রাইভেট সেক্টর’ শীর্ষক সেমিনারে এ কথা বলেন তিনি।

আহমদ কায়কাউস বলেন, দেশকে এগিয়ে নিতে সরকারি-বেসরকারি উভয় পক্ষকেই একে অপরের কাছে স্বচ্ছ হতে হবে। তিনি আরও বলেন, সিপিডি বড় প্রকল্প নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ তুলেছে। মাতারবাড়ি, মেট্রোরেল বাস্তবায়ন করা হচ্ছে জাপানি সংস্থা জাইকার অর্থায়নে। কেনাকাটাসহ অন্যান্য ক্ষেত্রে জাইকা সরাসরি সম্পৃক্ত। তাহলে জাইকাও দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত। রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের সব কাজ করছে রাশিয়া। সেখানকার দুর্নীতিতে কি রাশিয়া জড়িত?

প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিব বলেন, টিআইবি অভিযোগ করেছে প্রতি ডোজ করোনার টিকা কেনায় ৬৯ টাকা ঘুষ দেয়া হয়েছে। এ ধরনের অভিযোগের মানে কি? টিআইবির পরিচালনায় সবচেয়ে বেশি অর্থায়ন করে অষ্ট্রেলিয়ান খনন কোম্পানি বিএইচপি। পরিবেশ দূষণের দায়ে এই কোম্পানি বিভিন্ন দেশে কালো তালিকাভুক্ত। একটি কালো তালিকাভুক্ত কোম্পানির অর্থায়নে পরিচালিত প্রতিষ্ঠান আমাদের দুর্নীতিবাজ বলে যাবে, ফাজলামি নাকি? আমরা কি চুরি করে বসে আছি?

আহমদ কায়কাউস বলেন, দেশে দুর্নীতি নেই এ কথা বলা যাবে না। নিম্ন পর্যায়ে কিছু দুর্নীতি হয়। সরকার সেটি সংস্কারের চেষ্টা করছে। তবে ব্যবসায়ীদেরও স্বচ্ছ হতে হবে। সরকার ও বেসরকারি খাত একে অপরের কাছে স্বচ্ছ হলে অনেক ক্ষেত্রে যন্ত্রণামুক্ত হবে। দেশ এগিয়ে যাবে।

Back to top button