বিচারবহির্ভূত হত্যা দেশের জন্য অশনি সংকেত

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ (জিএম) কাদের বলেছেন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কর্তৃক বিচারবহির্ভূত হত্যা দেশের জন্য অশনি সংকেত। এমন ঘটনা কোনভাবেই কাম্য নয়।

শনিবার (১৬ এপ্রিল) বিকালে লালমনিরহাটের মহেন্দ্রনগরে পুলিশের নির্যাতনে নিহত রবিউল ইসলামের শোকাহত পরিবারকে সান্ত্বনা দিতে গিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

এই মৃত্যুর ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্তের দাবি জানিয়ে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলীয় উপনেতা জিএম কাদের বলেন, পুলিশের বিরুদ্ধে অভিযোগ পুলিশ তদন্ত করলে নিরপেক্ষতা নিয়ে সন্দেহ থাকে। সহকর্মী বা বন্ধু হিসেবে তদন্তে প্রভাব পড়তেই পারে। তাই বিচার বিভাগীয় তদন্ত প্রয়োজন। তবেই সঠিক তথ্য উঠে আসবে। প্রকৃত অপরাধীকে শাস্তির আওতায় আনা যাবে।

জাপা চেয়ারম্যান স্থানীয় প্রশাসনকে দায়ী করে বলেন, এ ঘটনায় ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের ভূমিকা আমাকে ব্যথিত করেছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর প্রধান কাজ জনগণের জান-মাল ও ইজ্জতের নিরাপত্তা বিধান করা। অথচ ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে চেষ্টা করেছেন প্রশাসনের কর্তা ব্যক্তিরা। দায়িত্বশীল অফিসার হিসেবে এটা করা ঠিক হয়নি। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা ভুলের ঊর্ধ্বে নয়। দুর্ঘটনা ঘটতেই পারে। দায়িত্বশীল অফিসার হিসেবে দ্রুত তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া উচিত ছিল। তাহলে সাধারণ মানুষ বিচারের দাবিতে সড়কে নামতো না। আর ন্যায় বিচার পাওয়া মানুষের নাগরিক অধিকার।

তিনি বলেন, নিহতের বিধবা স্ত্রীকে যোগ্যতা অনুযায়ী চাকরি দিতে হবে। স্থানীয় অনেক শূন্যপদ রয়েছে সেখানে তাকে চাকরি দিয়ে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে সহায়তা করতে প্রশাসনের প্রতি দাবি করছি। এসময় তিনি নিহত রবিউলের মেয়ে (৮ মাস) ভরন পোষণের জন্য প্রতি মাসে ৫ হাজার টাকা হারে দেওয়ার ঘোষণা দেন।

এর আগে জিএম কাদের লালমনিরহাট সদর থানা পুলিশের হেফাজতে মৃত রবিউল ইসলাম খানের পরিবারের সাথে কথা বলেন এবং শোকাহত পরিবারকে সমবেদনা জ্ঞাপন করে ন্যায় বিচারের আশ্বাস দেন। এরপর নিহতের কবর জিয়ারত করেন।

Back to top button