ভুয়া শ্রেয়া ঘোষালে ৮ লাখ টাকা খোয়াল বাংলাদেশ উপদূতাবাস

ভারতের জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী শ্রেয়া ঘোষালকে এক অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানাতে গিয়ে প্রতারকের খপ্পরে পড়ে ৮ লাখ টাকা খুইয়েছে কলকাতাস্থ বাংলাদেশ উপহাইকমিশন।

অনলাইন জালিয়াতদের প্রতারণার ফাঁদে পড়ে বাংলাদেশের উপহাইকমিশন এ টাকা খোয়ায়। বিষয়টি গড়িয়েছে কলকাতার আদালত পর্যন্ত, মামলা করেছে হাইকমিশন। খবরে বলা হয়- ‘হিটমেকার্স প্রোডাকশন প্রাইভেট লিমিটেড’ নামে মুম্বাইভিত্তিক একটি সংস্থার মাধ্যমে একটি অনুষ্ঠানের জন্য শ্রেয়া ঘোষালকে আমন্ত্রণ জানানোর উদ্যোগ নেয় বাংলাদেশ উপহাইকমিশন।

শ্রেয়ার সঙ্গে অনুষ্ঠানের চুক্তির জন্য অগ্রিম ৮ লাখ টাকা পাঠানো হয় সংস্থাটির পরিচালক কৃষ্ণ শর্মার ব্যাংক অ্যাকাউন্টে। পরে শ্রেয়া ঘোষালের স্বাক্ষরযুক্ত একটি ইমেল আইডি থেকেও মেল করে হাইকমিশনকে নিশ্চিত করা হয়। সেই মেলে শ্রেয়া ঘোষাল ‘ধন্যবাদ’ জানান বলে দাবি করেছে বাংলাদেশ উপহাইকমিশন। অনুষ্ঠানের সময় ঘনিয়ে এলে শ্রেয়ার সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করে উপহাইকমিশন। এ সময় তারা প্রতারণার শিকার হয়েছেন বুঝতে পারেন। পরে পুলিশের দ্বারস্থ হন হাইকমিশন কর্তৃপক্ষ।

অভিযোগের আঙুল উঠেছে হিটমেকার্স প্রোডাকশন প্রাইভেট লিমিটেডের বিরুদ্ধে। বাংলাদেশ হাইকমিশনকে ওই সংস্থার খোঁজ দিয়েছিলেন চিরন্তন বন্দ্যোপাধ্যায় নামে কলকাতার এক শিল্পী। এ ঘটনায় চিরন্তন বন্দ্যোপাধ্যায়কে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে পুলিশ। কিন্তু তিনি বলছেন, তিনিও ওই সংস্থার প্রতারণার শিকার হয়েছেন। তিনি উল্টো অভিযোগের আঙুল তোলেন প্রসেনজিৎ চক্রবর্তী ওরফে প্রিন্স নামে এক যুবকের বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত প্রিন্স পলাতক। আর মামলাটি কলকাতা হাই কোর্টে বিচারাধীন। বিচারপতি রাজাশেখর মান্থারের এজলাস কলকাতা পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগকে এ প্রতারণা তদন্তের নির্দেশ দিয়ে দুই মাসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে বলেছে।

Back to top button