শিনজিয়াংয়ে প্রতি ২৫ উইঘুরের ১ জন কারাগারে

চীনের শিনজিয়াং প্রদেশে উইঘুর সম্প্রদায়ের সদস্যদের প্রতি ২৫ জনের ১ জন বিভিন্ন মেয়াদে সাজা পেয়ে থাকেন। এটিই বিশ্বের যেকোনো অঞ্চলে সর্বোচ্চ কারাদণ্ড ভোগের হার।

প্রায় ২ লাখ ৬৭ হাজার মানুষের কোনাশেহের শিনজিয়াং প্রদেশের দক্ষিণে ছোট গ্রামীণ অঞ্চল। তালিকা অনুসারে, সেই অঞ্চলের অসংখ্য বাসিন্দা ২ থেকে ২৫ বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত হয়েছেন। গড় কারাদণ্ডের পরিমাণ ৯ বছর। খবর আল-জাজিরার।

কারাদণ্ড পাওয়া বেশিরভাগ ব্যক্তির বিরুদ্ধেই জঙ্গিবাদের সঙ্গে যুক্ত থাকার অভিযোগ আনা হয়েছে।

শিনজিয়াংয়ের কোনাশেহের অঞ্চলে কারাভোগ করছেন এ রকম ১০ হাজার ব্যক্তির তালিকা এসেছে এপি’র হাতে। তালিকাভুক্ত সবাই উইঘুর বলে নিশ্চিত করতে পেরেছে বার্তা সংস্থাটি।

সাম্প্রতিক বছরগুলোয় পশ্চিমের গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে চীনের ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী উইঘুরদের ওপর চরম নির্যাতনের অভিযোগ প্রকাশিত হয়েছে। চীন সরকার তাদের বিরুদ্ধে পরিচালিত ধারাবাহিক অভিযানকে ‘সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধ’ হিসেবে অভিহিত করেছে। এ জনগোষ্ঠীর সদস্যরা মূলত ইসলাম ধর্মাবলম্বী।

ফাঁস হওয়া তালিকাটি এখন পর্যন্ত বন্দি থাকা উইঘুরদের সবচেয়ে দীর্ঘ তালিকা। ধারণা করা হচ্ছে, ১০ লাখেরও বেশি উইঘুরকে চীন সরকার বিভিন্ন বন্দিশিবির ও কারাগারে আটকে রেখেছে। দীর্ঘদিন ধরে মানবাধিকার সংস্থাগুলো দাবি করে এসেছে যে, সরকার দীর্ঘমেয়াদী কারাদণ্ড দিয়ে উইঘুরদের দমন ও আইনকে শোষণের হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছে।

Back to top button