বিশ্বকাপের আগেই মেসি বনাম নেইমার লড়াই! কবে, কোথায়? জেনে নিন

কাতার বিশ্বকাপ এই বছরের শেষ দিকে হতে চলেছে মধ্যপ্রাচ্যে। ফুটবলপ্রেমীদের মনে এখন থেকেই উত্তেজনা শুরু হয়েছে। তার মধ্যে বিশেষ করে উপমহাদেশে ব্রাজিল এবং আর্জেন্টিনার ভক্ত বিশাল সংখ্যায়। বিশ্বকাপের আগে আরো একটি হাইভোল্টেজ আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল ম্যাচ দেখতে যাচ্ছে ফুটবলপ্রেমী মানুষ। অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নে বিশ্বকাপ নিয়ে প্রস্তুতিমূলক একটি ম্যাচ খেলবে লাতিন আমেরিকার এই দুই পাওয়ারহাউজ।

জুনের ১১ তারিখ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে ব্রাজিল এবং আর্জেন্টিনার এই ম্যাচটি। অস্ট্রেলিয়ার রাজ্য ভিক্টোরিয়ার সরকার বুধবার নিশ্চিত করেছে যে, দেশটির আইকনিক মেলবোর্ন স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে ম্যাচটি। প্রায় ৫ বছর পর ৯৫ হাজার দর্শক সম্বলিত স্টেডিয়ামটিতে এমন একটি ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।

ভিক্টোরিয়ান্স রাজ্য সরকারের স্পোর্টস অ্যান্ড ট্যুরিজম মিনিস্টার মার্টিন পাকুলা বলেন, বিশ্বের সবচেয়ে সফল দুটি ফুটবল দেশ আবারও মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে মুখোমুখি হতে যাচ্ছে। মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে আবারও চির প্রতিদ্বন্দ্বী দুটি দেশের লড়াই আয়োজন করতে যাচ্ছি। যাতে সারা বিশ্বকে দেখাতে পারি যে এটা একটা গ্রেট স্পোর্টিং সিটি।
তিনি আরো বলেন, ফুটবল সারা বিশ্বেই একটি বৈশ্বিক খেলা হিসেবে পরিচিত। যে কারণে এই ম্যাচটি দেখতে কয়েক মিলিয়ন মানুষ মেলবোর্নের দিকে তাকিয়ে থাকবে। একই সঙ্গে ভিক্টোরিয়ায় হাজার হাজার পর্যটকেরও সমাগম ঘটবে। এর আগে গত বছর সেপ্টেম্বরে ব্রাজিলের সাও পাওলোয় পরস্পর মুখোমুখি হয়েছিল ব্রাজিল এবং আর্জেন্টিনা।

বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের ওই ম্যাচটি মাত্র এক মিনিট খেলার পরই বন্ধ করে দেয়া হয় করোনা প্রটোকল ভাঙার অজুহাতে। তবে এরই মধ্যে বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করে ফেলেছে ব্রাজিল এবং আর্জেন্টিনা। জুনের এই ম্যাচ দিয়ে অস্ট্রেলিয়া চাইছে বিশ্বকাপের আগে মেসি এবং নেইমারের একটি দ্বৈরথ উপহার দিতে।

৫ বছর আগে, তথা ২০১৭ সালেও মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে মুখোমুখি হয়েছিল আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল। ওই ম্যাচে মেসির একমাত্র গোলে জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছিল লা আলবিসেলেস্তারা। তার আগে স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়াকেও ১-০ গোলে হারিয়েছিল আর্জেন্টিনা। মেসি বনাম নেইমার লড়াই নিয়ে ব্রাজিল বনাম আর্জেন্টিনার ইউএসপি বরাবর দারুণ থাকে।

Back to top button