আশ্রয়ণ প্রকল্পের আম জোরপূর্বক পারতে বাধা দেওয়ায় প্রাণনাশের হুমকি

কুমারখালী(কুষ্টিয়া) প্রতিনিধিঃ কুষ্টিয়ার খোকসা হেলিপ্যাড আশ্রয়ণ প্রকল্প থেকে জোরপূর্বক আম পারতে বাধা দেওয়ায় আশ্রয়ণ এর বসতিদের প্রাণনাশের হুমকি দিয়েছে খোকসার গুচ্ছগ্রামের মৃত পুলাদের ছেলে লালন ও একই এলাকার মৃত আনছার আলীর ছেলে লিটন। শনিবার দুপুরে আশ্রয়ণ এ আম পারার সময় বসতিদের বাধার মুখে তারা পালিয়ে যাবার সময় প্রাণনাশের হুমকি দেয়।
এ ব্যাপারে খোকসা থানায় অভিযোগ দিয়েছে আশ্রয়ণ এর বাসিন্দারা।

আশ্রয়ন এর বাসিন্দা ইমরান, মাজেদা, লিপি, রোজিনা, মাজেদা ও মিতাসহ অনেকেই জানান, দীর্ঘদিন যাবত লিটন ও লালন আশ্রয়ণ বসবাসরত বাসিন্দাদের বিভিন্ন ধরনের সমস্যা সৃষ্টি করে আসছে। আশ্রয়ণ এর জমি তাদের বলে দাবী করছে তারা। ভয়ভীতি দেখানোর কারণে ইতিমধ্যে আশ্রয়ণের ৩৮ পরিবারের অনেকেই চলে গেছে বলে জানান তারা। এছাড়া কিছুদিন আগে আশ্রয়নের চারপাশে লাগানো বাঁশের ঝাড় কর্তন করে নিয়ে যায় লালন ও লিটন। বর্তমানে বসতিদের ঘরের সামনের গাছগুলো তারা যতœসহকারে বড় করে তুলে আম আসার পর থেকেই শুরু হয় হুমকি-ধামকি ২৭ তারিখে লালন ও পরদিন লিটন বস্তা ভরে কাঁচা আম পারে। জিজ্ঞাসা করলে তারা বলে আমার গাছের আম আমি পারবো তোর কাছে কৈফত দেব নাকি? বাধা সৃষ্টি করলে তারা আশ্রায়ন বাসীকে মারতে উদ্যত হয় সেই সময় আশ্রয়ন এর মহিলারা এগিয়ে আসলে তারা পালিয়ে যায় এবং যাবার সময় প্রাণনাশের হুমকি দেয়।

আশ্রয়ণে বসবাসরত সাংবাদিক শামিম হোসেন জানান, তাকে হযরত নামক ব্যক্তি হুমকী দিয়ে বলেছে তুমি পুলিশ ডেকে এনেছ এখানে কিভাবে বাস করো সেটা দেখবো।

এ বিষয়ে খোকসা থানার পুলিশ পরিদর্শক (ওসি তদন্ত) মামুনুর রশীদ জানান, অভিযোগ পেয়েছি। ইতিমধ্যে অভিযুক্তদের বাড়িতে গিয়ে তাদের পাওয়া যায়নি। এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Back to top button