শিরোপা গুজরাটেই থাকবে না কি রাজস্থানে যাবে

আইপিএলের বহুল প্রতীক্ষিত ফাইনাল আজ। বাংলাদেশ সময় রাত ৯টায় আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামে মুখোমখি হবে গুজরাট টাইটান্স ও রাজস্থান রয়্যালস। কার হাতে যাচ্ছে শিরোপা সেটা নিয়ে চলছে জল্পনা।এবারই প্রথম আইপিএল খেলছে গুজরাট টাইটান্স। দলটির নেতৃত্বে আছেন অলরাউন্ডার হার্দিক পান্ডিয়া। ব্যাট ও বল হাতে আছেন দারুণ ছন্দে। তার নেতৃত্বে শুরু থেকেই ছন্দে আছে ফ্রাঞ্জাইজিটি। গ্রুপ পর্ব শেষ করেছে শীর্ষে থেকে। এরপর প্রথম কোয়ালিফায়ারে রাজস্থান রয়্যালসকে হারিয়ে জায়গা করে নেয় ফাইনালে।ব্যাটিংয়ে শুরুতেই পার্থক্য গড়ে দিতে পারেন দুই ওপেনার শুভমান গিল ও ঋদ্ধিমান সাহা। মিডল অর্ডারে দারুণ ছন্দে আছেন হার্দিক পান্ডিয়া ও ডেভিড মিলার। শেষ দিকে ঝড় তুলতে সক্ষম রাহুল তেওয়াতিয়া ও রশিদ খান। দলকে ফাইনালে নিয়ে আসার ক্ষেত্রে প্রত্যেকেরই অবদান রয়েছে। বল হাতে অভিজ্ঞ লকি ফার্গুসন, মোহাম্মদ শামি ও রশিদ খান রয়েছেন। সঙ্গে তরুণ ইয়াশ দয়ালও বেশ ভালো সঙ্গ দিচ্ছেন।অন্যদিকে, ২০০৮ সালে আইপিএলের প্রথম আসরেই শিরোপা জিতেছিল রাজস্থান। এরপর আরও ১৩টি আসর অনুষ্ঠিত হয়েছে। শিরোপা জয় তো দূরে থাক, আর কখনো ফাইনালেই পৌঁছাতে পারেনি ফ্রাঞ্জাইজিটি। অবশেষে ১৫তম আসরে এসে সেই আক্ষেপ দূর হলো। সঞ্জু স্যামসনের নেতৃত্বে দলটি এবার বেশ গুছালো। চ্যাম্পিয়ন হওয়ার মতো সব যোগ্যতাই তাদের রয়েছে। এবারের মৌসুমে এরই মধ্যে আট শতাধিক রান (৮২৪) করেছেন জস বাটলার। হাঁকিয়েছেন পাঁচটি শতক। আর একটি করতে পারলেই এক মৌসুমে সর্বোচ্চ ৬টি সেঞ্চুরি করা ক্রিস গেইলকে ধরে ফেলবেন। একই সঙ্গে সুযোগ রয়েছে এক আসরে সর্বাধিক রান সংগ্রহ করার রেকর্ড নিজের করে নেওয়ারও। এছাড়া ব্যাট হাতে দলকে জেতানোর সক্ষমতা রয়েছে জয়সওয়াল, অধিনায়ক সঞ্জু স্যামসন, দেবদূত পাডিক্কাল, শিমরন হেটমায়ার ও রায়ান পরাগের। বল হাতে আছেন রবিচন্দ্রন অশ্বিন, যুযবেন্দ্র চাহাল, ট্রেন্ট বোল্ট, প্রসিধ কৃষ্ণা ও ওবেধ ম্যাকওয়ে। এর মধ্যে চলতি আসরে এখন সর্বাধিক ২৬ উইকেট শিকার করেছেন চাহাল। একনজরে দুই দলের সম্ভাব্য একাদশরাজস্থান রয়্যালস: যশস্বী জয়সওয়াল, জস বাটলার, সঞ্জু স্যামসন (অধিনায়ক ও উইকেটকিপার), দেবদূত পাডিক্কাল, শিমরন হেটমায়ার, রায়ান পরাগ, রবিচন্দ্রন অশ্বিন, ট্রেন্ট বোল্ট, ওবেধ ম্যাকওয়ে, যুযবেন্দ্র চাহাল ও প্রসিধ কৃষ্ণা।

গুজরাট টাইটান্স: শুভমান গিল, ঋদ্ধিমান সাহা (উইকেটকিপার), ম্যাথু ওয়েড, হার্দিক পান্ডিয়া (অধিনায়ক), ডেভিড মিলার, রাহুল তেওয়াতিয়া, রশিদ খান, সাই কিশোর, ইয়াশ দয়াল, লকি ফার্গুসন ও মোহাম্মদ শামি।

Back to top button