ছেলের শাবলের আঘাতে বাবা খুন, মা হাসপাতালে

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে ছেলে জহিরুল ইসলাম (২৮) এর শাবলের আঘাতে বাবা আব্দুল গফুর (৫৮) নিহত হয়েছেন। একই ঘটনায় আহত হন মা হাসতন নেছা (৪৫)। রবিবার রাত ১২টার দিকে আদমপুরের মুসলিম মণিপুরী পল্লীর কেওয়ালীঘাট গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত গফুর ওই গ্রামের মৃত আব্দুল জব্বারের ছেলে।

এ ঘটনায় আহত মা হাসতন নেছাকে রাতেই সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘাতক ছেলে পলাতক। স্থানীয়রা জানান, রবিবার রাতে মা-বাবার সঙ্গে ঝগড়া হয় ছেলে জহিরের। একপর্যায়ে ক্ষুব্ধ জহির ঘরে থাকা শাবল দিয়ে বাবা গফুরের মাথাসহ শরীরে আঘাত করে। এ সময় তাঁর মা হাসনত নেছা স্বামীকে বাঁচাতে এগিয়ে গেলে তাঁকেও আঘাত করে পালিয়ে যায়। পরে বাড়ির লোকজন আহতদের উদ্ধার করে রাত ১টায় কমলগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক প্রাথমিকভাবে চিকিৎসা প্রদান করে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে রেফার করেন। হাসপাতালে নেওয়ার পথে আব্দুল গফুরের মৃত্যু হয়।

বাবার সঙ্গে কি নিয়ে ছেলের বিবাদ হয়েছিল তা জানা যায়নি। তবে স্থানীয়রা জানান, ছেলে জহিরুল নেশাগ্রস্ত ছিলেন। প্রায় রাতে নেশা করে বাড়ি ফিরতেন। নেশার টাকা নিয়ে ঝগড়া হতে পারে বলে মনে করেন অনেকে। স্থানীয় আদমপুর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দাল হোসেন ঘটনার স্বীকার করেছেন। কমলগঞ্জ থানার ওসি ইয়ারদৌস হাসান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘ঘাতক ছেলেকে ধরতে পুলিশ অভিযান শুরু করেছে।

Back to top button