ডনবাসে রুশ হামলায় ফরাসি সাংবাদিক নিহত

রাশিয়ার হামলায় নিহত হয়েছেন এক ফরাসি সাংবাদিক। পূর্ব ইউক্রেনে বেসামরিক নাগরিকদের উদ্ধারে যাওয়া একটি বাসে বোমা পড়লে তিনি নিহত হন। তার নিহত হওয়ার খবর নিশ্চিত করেছে ফ্রান্স ও ইউক্রেনের কর্মকর্তারা। এ খবর দিয়েছে আল-জাজিরা।

সোমবার ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রন টুইটারে এ নিয়ে একটি পোস্টে বলেন, সাংবাদিক ফ্রেডেরিক লেক্লার্ক-ইমহফ যুদ্ধের বাস্তবতা দেখানোর জন্য ইউক্রেনে ছিলেন। রুশ বোমা হামলা থেকে বাঁচতে পালাতে বাধ্য হওয়া বেসামরিকদের সঙ্গে একটি বাসে তিনি গুরুতর আহত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন। এসময় তিনি নিহত লেক্লার্কের পরিবার সহকর্মীদের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন। ম্যাসেজিং অ্যাপ টেলিগ্রামে লুহানস্ক অঞ্চলের গভর্নরও লেক্লার্কের মৃত্যুর কথা নিশ্চিত করেছেন। গভর্নর সেরগেই হেইদেই লেখেন, এক ফরাসি সাংবদিক নিহত হওয়ার পর এই অঞ্চল থেকে লোকজনকে সরিয়ে নেওয়ার কার্যক্রম স্থগিত করা হয়েছে। এ সময় তিনি লেক্লার্ক-ইমহফের গণমাধ্যমকর্মী হিসেবে ব্যবহৃত আইডি কার্ডের একটি ছবিও সংযুক্ত করেন।

জানা গেছে, ৩২ বছর বয়সী লেক্লার্ক-ইমহফ ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে রুশ সামরিক অভিযান শুরুর পর দ্বিতীয় বারের মতো দেশটিতে গিয়েছিলেন। বর্তমানে পূর্ব ইউক্রেনের সেভারোদোনেৎস্ক শহরে প্রচ- যুদ্ধ চলছে। সেখানকার কাছাকাছিই ছিলেন লেক্লার্ক। তিনি ‘বিএফএম টেলিভিশন নিউজ চ্যানেল’ নামের একটি গণমাধ্যমে কর্মরত ছিলেন। বিএফএম তাদের একজন সংবাদকর্মী নিহতের ঘটনা নিশ্চিত করে জানিয়েছে, ম্যাক্সিম ব্রান্ডস্ট্যাটার নামে ইমহফের আরেক সহকর্মীও আহত হয়েছেন। এমন ঘটনায় সাংবাদিকদের নিরাপত্তা নিয়েও প্রশ্ন তোলে প্রতিষ্ঠানটি। এছাড়া এই হত্যাকা- নিয়ে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভোলোদিমির জেলেনস্কিকে তদন্ত করার আহ্বান জানিয়েছেন ফ্রান্সের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ক্যাথরিন কলোনা।

Back to top button