এবার রবীন্দ্রসংগীত গাইলেন হিরো আলম

বগুড়ার ছেলে আশরাফুল হোসেন ওরফে হিরো আলম। যাকে নিয়ে আলোচনা করা যায়, কিন্তু তাকে এড়িয়ে যাওয়া যায় না। একাধারে তিনি প্রযোজক, অভিনেতা ও গায়ক। আলোচনা-সমালোচনার তোয়াক্কা না করে আপন মনে কাজ করে যাচ্ছেন।

ক’দিন আগে ভারতের ‘কাঁচা বাদাম’ খ্যাত ভূবন বাদ্যকরের সঙ্গে ‘হাউ ফানি’ শিরোনামে গান করেন হিরো আলম। এর আগে তিনি গেয়েছেন রানু মন্ডলের সঙ্গেও। এর পাশাপাশি বিভিন্ন দেশের ভাষার গান তো আছেই। এরই ধারাবাহিকতায় এবার রবীন্দ্রসংগীত গাইলেন হিরো আলম। রবীন্দ্রসংগীতের জনপ্রিয় গান ‘আমারও পরানো যাহা চায়’ গেয়েছেন তিনি। শুধু তাই নয়, ওপার বাংলার কিংবদন্তি শিল্পী মৌসুমী ভৌমিকের ‘আমি শুনেছি সেদিন তুমি’ গানটিও কণ্ঠে তুলেছেন তিনি। নেক্সট এন্টারটেইনমেন্টের ব্যানারে গানটির টিচার ইতিমধ্যেই প্রকাশ করেছেন তিনি। পুরো গান প্রকাশের আগে হিরো আলম বলেন, ‘আপনাদের সবাইকে একটা স্মরণ করিয়ে দিতে চাই, আমি কোনো সিঙ্গার বা শিল্পী না। সম্পূর্ণ বিনোদন দেওয়া চেষ্টা করি। বিশ্ব কবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকে সবাই ভালোবাসে, আমিও তার গানের ভক্ত। আমি সব ভাষাতে যেহেতু গান করেছি, তাই আমি চেষ্টা করেছি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের কিছু গান গেয়ে আপনাদের উপহার দেওয়ার জন্য। আমি যেহেতু বাঙালি আমারও বিশ্বকবির গান গাওয়ার অধিকার আছে।

তিনি আরও বলেন, ‘আমি আমার জায়গা থেকে ভক্তি ও শ্রদ্ধা নিয়ে গানটি গাওয়ার চেষ্টা করেছি। আমার ভুল হলে সবাই ক্ষমার করে দিবেন। রবীন্দ্রসংগীতটি আমি আমার সকল ভক্ত-শ্রোতাদের উৎসর্গ করলাম। কবিকে কে না ভালোবাসে, আমিও ভালোবাসি। আমার এই গান নিয়ে অনেকেই মজা করবেন। আসলে আমি সবসময়ই চেষ্টা করি শ্রোতাদের ভিন্ন কিছু দিতে। একদিন আমি থাকব না, আমার কাজগুলো মানুষ দেখবে। তখন তারা আমাকে স্মরণ করবে- এই ভাবনা থেকেই কাজগুলো করা। আবারও সবাইকে বলছি, আমার এই গানে ভুল হলে ক্ষমা দৃষ্টিতে দেখবেন। পুরো গান প্রকাশের আগেই হিরো আলমের রবীন্দ্রসংগীত নিয়ে নেটদুনিয়ায় শুরু হয়েছে সমালোচনা। যেখানে বেশির ভাগ মন্তব্যই পড়েছে নেতিবাচক। অনেকেই বলছে, এবার রবীন্দ্রসংগীতের ‘১২টা বাজালেন’ হিরো আলম।

Back to top button