চট্টগ্রামের সব চিকিৎসকের ছুটি বাতিল

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে বিএম কনটেইনার ডিপোতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে এ পর্যন্ত ১৮ জন নিহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে তিনজন ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের কর্মী। অগ্নিকাণ্ডে আহত হয়েছেন আরও চার শতাধিক। হতাহতদের মধ্যে ডিপোর শ্রমিক, স্থানীয় বাসিন্দাদের পাশাপাশি পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরাও রয়েছেন।

এদিকে চট্টগ্রামে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের বাতিল করা হয়েছে সেখানকার সব চিকিৎসকদের ছুটি। সীতাকুন্ডের ভাটিয়ারী এলাকায় কনটেইনার ডিপোতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় এমন ঘোষণা দেওয়া হয়। শনিবার (৪ জুন) রাতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটলেও রোববার সকালেও আগুন জ্বলতে থাকে। অগ্নিকাণ্ডের সময় বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটায় হতাহতের সংখ্যা আরও বেড়ে যায়।

হতাহতদের চট্টগ্রাম মেডিকেলে নেওয়া হয়। অতিরিক্ত রোগীর চাপে অনেককে ওয়ার্ড ছাড়াও হাসপাতালের মেঝেতে চিকিৎসা দেওয়া হয়। এছাড়া নগরীর অন্যান্য হাসপাতাল এবং কম্বাইন্ড মিলিটারি হাসপাতালেও (সিএমএইচ) রোগী বাড়তে থাকে। এ পরিস্থিতিতে চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ ইলিয়াছ চৌধুরী চিকিৎসকদের দ্রুত হাসপাতালে যোগ দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।

ঘটনার পর ফায়ার সার্ভিসের ২৪টি ইউনিট ঘটনাস্থলে আগুন নিয়ন্ত্রণের কাজ করছেন। এছাড়া ফেনী, নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর ও কুমিল্লাসহ আশেপাশের বিভিন্ন জেলা থেকে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরাও আগুন নিয়ন্ত্রণে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়েছেন।

সোনালীনিউজ/এমএএইচ

Back to top button