হাতিয়ার জমা না দিলে প্রতিরোধ হবে কঠোরভাবে, মির্জা ফখরুলের উদ্দেশে মায়া

আওয়ামী লীগ সরকার পতনে বৃহত্তর আন্দোলনের ডাক দেওয়া বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে ‘কঠোরভাবে প্রতিহত করা হবে’ বলে হুশিয়ার করেছেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য বীর বিক্রম মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া। মির্জা ফখরুলের উদ্দেশে মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বলেন, ‘আন্দোলন কিভাবে করতে হয়, দাবি কিভাবে আদায় করতে হবে…. ষড়যন্ত্রকারীদের কিভাবে প্রতিরোধ করতে হয়, এটা আওয়ামী লীগ জানে। সুতরাং সব হাতিয়ার জমা দিন। নয়তো প্রতিরোধ করা হবে কঠোরভাবে।

রোববার বেলা সাড়ে ১১ টায় ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের বিশেষ বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য তিনি এসব কথা বলেন। বিএনপির সরকার-পতন আন্দোলন নিয়ে মায়া বলেন, ‘ফখরুল সাহেব বেশি বাড়াবাড়ি করবেন না, আপনারা কারা আমরা জানি। ৭১ সালে দেশবিরোধী ছিলেন, ৭৫ সালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যা করেছেন, এখন আমার নেত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার হুমকি দেন, ষড়যন্ত্র করেন। আওয়ামী লীগ কি বসে বসে ঘাস কাটবে? ষড়যন্ত্র বন্ধ করুন। তা না হলে দাঁত ভাঙা জবাব দেওয়া হবে। পালানোর জন্য পথও খোঁজে পাবেন না।

আগামী ২৫ জুন পদ্মা সেতু উদ্বোধনের মধ্যদিয়ে বাঙালি জাতি আরেকটি বিজয় অর্জন করবে উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের এই জ্যেষ্ঠ নেতা বলেন, ‘একটি সেতু গোটা বিশ্ববাসীকে তাক লাগিয়ে দিয়েছে। আগামীতে আরও দেখতে পারবেন। যত দিন শেখ হাসিনা থাকবে, তত দিন দেশের উন্নয়নই হবে।অনুষ্ঠানে সাবেক খাদ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য কামরুল ইসলাম বলেন, ‘আজও জিয়াউর রহমানের উত্তরসূরিরা দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে।

তারা চায় যেকোনো মূল্যে পিছনের দরজা দিয়ে ক্ষমতায় আসতে। তারা জানে নির্বাচনের মধ্যে দিয়ে তারা ক্ষমতায় আসতে পারবে না। তাদের ষড়যন্ত্র প্রতিরোধে সবাইকে অতন্দ্র প্রহরীর মতো সতর্ক থাকতে হবে। ঢাকা মহানগর দক্ষিন আওয়ামী লীগের সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা আবু আহমেদ মন্নাফীর সভাপতিত্বে সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগর দক্ষিন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি রুহুল আমিন, হেদায়েতুল ইসলাম স্বপন, যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মহি উদ্দিন মহী ও মিরাজ হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম সারোয়ার কবির, প্রচার সম্পাদক সাইফুন্নবী চৌধুরী সাগর, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক এফ এম শরিফুল ইসলাম শরিফসহ আরও অনেকে।

Back to top button