খোকসায় গড়াই নদীর তীর রক্ষা বাঁধ, ঘর ভাংচুর লোকজনের ভোগান্তি

খোকসা সংবাদদাতাঃ কুষ্টিয়া খোকসায় গড়াই নদীর তীর রক্ষা বাঁধে লোকজন ভোগান্তির শিকার। খোকসা শহর রক্ষা বাঁধে সরকারি ব্লক ফেলে নদী তীর বর্তী স্থাপনাগুলো নিরাপত্তা ব্যবস্থা করা এক সময়ের দাবি। তারই কারনে খোকসা শহর থেকে প্রায় এক থেকে দেড় কিলোমিটার নদী ভাঙ্গন এলাকায় শহর রক্ষা ও সাধারণ মানুষের ঘর বাড়ী সহ বিভিন্ন স্থাপনা রক্ষার কাজ চলছে। প্রমত্ত পদ্মা নদীর শাখা গড়াই নদীতে বর্ষায় ভরা মৌসুমে নদী ভাঙ্গন আবার নদীর শুস্ক মৌসুমে ভাঙ্গনের সৃষ্টি হয়।

যা ঘর বাড়ী সহ অন্যান্য স্থাপনা নদী গর্ভে বিলিন হয়ে যায়। ফলে অনেকে গৃহহীন হয়ে পড়ছে। সেই সাথে ভুমিহীনও হচ্ছে। কৃষকরা ফসলী জমি হারাচ্ছে। সব কিছু বিলিন হয়ে যাচ্ছে। শহর রক্ষা বাধের ফলে নদী তীর বর্তী এলাকায় নিজ ঘর বাড়ী ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। ফলে সাধারণ মানুষের ঘর বাড়ী ভাংচুরের ঘটনায় তাদের মধ্যে হতাশ সৃষ্টি হয়েছে।

তাদের দাবী সরকার তাদের ব্যবস্থা করে অনত্র সরিয়ে দিয়ে কাজ করুক। কিন্তু সেটা না করে শেষ সম্বল মাথার গোজার ঠাঁই ঘর বাড়ী ভেঙ্গে কাজ করে চলছে। খোকসা জানিপুর শহরের পূর্ব দিক হযে কমলাপুর মিয়া পাড়ার মধ্য দিয়ে ঋষি পাড়া সিরাজপুর হাওর পযর্ন্ত বাঁধ নির্মাণের কাজ চলছে।

বাদশা খান, খোকসা

     (কুষ্টিয়া) 

Back to top button