মহানবীকে অবমাননাকর মন্তব্য ইস্যুতে মুখ খুললেন বলিউডের শীর্ষ অভিনেতা, মোদির হস্তক্ষেপ কামনা

এবার মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা)-কে নিয়ে অবমাননাকর মন্তব্য ইস্যুতে মুখ খুললেন বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা নাসিরুদ্দিন শাহ। বর্ষীয়ান এই অভিনেতা ভারতে ধর্মীয় বিদ্বেষ ছড়ানো বন্ধে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর হস্তক্ষেপ চেয়েছেন। তিনি প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে বলেন, কিছু করুন, বিদ্বেষের বিষ ছড়ানো বন্ধ করুন। এনডিটিভিকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে মোদীর উদ্দেশ্যে এই আহবান জানান নাসিরুদ্দিন।

এতে তিনি বলেন, যারা বিদ্বেষ ছড়াচ্ছে, তাদের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর কিছু করা দরকার। এই বিষ যাতে না ছড়ায়, তার জন্য তাকে পদক্ষেপ নিতে হবে। সাক্ষাৎকারে নাসিরুদ্দিনকে নূপুর শর্মার প্রসঙ্গে প্রশ্ন করা হয়। এর উত্তরে তিনি বলেন, নূপুর মোটেই ফ্রিঞ্জ এলিমেন্ট বা বিচ্ছিন্ন অগুরুত্বপূর্ণ নেতা নন। তিনি বিজেপি’র জাতীয় মুখপাত্র ছিলেন। আবার নূপুর যে ক্ষমা চেয়েছেন তা আন্তরিক ছিল না। তার এসব কথায় মানুষের মনে যে ধাক্কা লেগেছে, তা প্রশমিত হবে না।

এরপরই নাসিরুদ্দিন বলেন, আমি প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবেদন করব, তিনি মানুষের মনে ভালো চিন্তা ঢোকাবার চেষ্টা করুন।
তবে একইসঙ্গে নূপুর শর্মাকে হত্যার হুমকির নিন্দা জানান এই অভিনেতা। তিনি বলেন, এই হুমকি অবশ্যই নিন্দনীয়। এসব কথা ভাবাটাই অন্যায়। এজন্যই পাকিস্তান ও আফগানিস্তানের আজ এই পরিণতি।

আমরা ওদের অনুকরণ করতে চাই না। কিন্তু দিনশেষে আমরা তাই করছি। ঘৃণা ছড়ানোর জন্য টিভি চ্যানেলগুলিকেও দোষ দিয়েছেন নাসিরুদ্দিন। বলেছেন, ঘৃণা তৈরি করা হচ্ছে আর এর জন্য টিভি নিউজ ও সামাজিক মাধ্যম দায়ী।

উল্লেখ্য, নাসিরুদ্দিনই প্রথম অভিনেতা জিনি এই ইস্যুতে মুখ খুললেন। এর আগে অবশ্য আরেক অভিনেত্রী কঙ্কনা রানাউত তার ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে এক পোস্টে বিষয়টি নিয়ে কথা বলেছেন। তবে তিনি একতরফা নূপুর শর্মাকে সমর্থন করেছেন এবং তাকে হত্যা হুমকির নিন্দা জানিয়েছেন।

Back to top button