মহানবীকে অবমাননার প্রতিবাদে ঢাকা দ: জেলা জামায়াতের মিছিল

বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর ঢাকা জেলা দক্ষিণের আমির মাওলানা দেলাওয়ার হোসাইন বলেছেন, সম্প্রতি ভারতে উগ্রবাদী অপৎপরতা আশঙ্কাজনকভাবে বেড়েছে। তারা এখন দেশটিতে ইসলাম ও মুসলিম শাসকদের গৌরবময় ঐতিহ্যকে বিশেষভাবে টার্গেট করেছে। সে ধারাবাহিকতায় ক্ষমতাসীন বিজেপির দুই মুখপাত্র বিশ্বনবী সা: ও উম্মুল মোমেনীন হযরত আয়েশাকে রা: নিয়ে আপত্তিকর ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করে ক্ষমার অযোগ্য অপরাধ করেছেন।

তিনি অবিলম্বে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্যের জন্য সরকারকে মুসলিম উম্মাহর কাছে ক্ষমা প্রার্থনার আহ্বান জানান। অন্যথায় মুসলিম বিশ্ব দেশটির সাথে সকল সম্পর্ক ছিন্ন করবে। তিনি আজ ঢাকায় বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী ঢাকা জেলা দক্ষিণ আয়োজিত ভারতের ক্ষমতাসীন দলের দুই শীর্ষনেতার মহানবী সা: ও হযরত আয়েশাকে রা: নিয়ে আপত্তির মন্তব্যের প্রতিবাদে এবং অবিলম্বে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য প্রত্যাহার করে মুসলিম উম্মাহর কাছে ক্ষমা প্রার্থনার দাবিতে কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে এক বিক্ষোভ পরবর্তী সমাবেশে এসব কথা বলেন।

বিক্ষোভ মিছিলটি কেরানীগঞ্জ কদমতলী থেকে শুরু হয়ে নগরীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে মনু বেপারীর ঢালে এসে সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়। সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন জেলা সেক্রেটারি মো: শাহিনুর ইসলাম, সহকারি সেক্রেটারি এবিএম কামাল হোসাইন, শিবিরের জেলা সভাপতি সাফিউল আলমসহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ। বিক্ষোভ মিছিলে বিপুল সংখ্যক সাধারণ মানুষ অংশ নেন।

মাওলানা দেলাওয়ার হোসাইন বলেন, ভারতের ধর্মান্ধ ও উগ্রবাদীরা মূলত ইসলাম বিরোধিতা ও মুসলিম বিদ্বেষকে রাজনৈতিক হাতিয়ার বানিয়েছে। মূলত, ভারতের রাজনীতিতে উগ্রবাদীদের উত্থান পুরো উপমহাদেশকেই অস্থিতিশীল করে তুলেছে। সাম্প্রতিক ঘটনা প্রবাহে প্রমাণ হয় দেশটির উগ্রবাাদীরা পরিকিল্পতভাবেই মুসলিম বিদ্বেষ উস্কে দিয়ে আগামীতে নির্বাচনী বৈতরণী পার হতে চায়। কিন্তু এবারের প্রেক্ষাপট সম্পূর্ণ আলাদা। কারণ, এই ইস্যুতে পুরো মুসলিম উম্মাহই এখন ঐক্যবদ্ধ। তাই এবারের খেলা তাদের জন্যই বুমেরাং হতে বাধ্য।তিনি ভারতে মুসলিমবিদ্বেষ মোকাবেলায় ওআইসি, আবরলীগসহ বিশ্ব মুসলিমকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান।

Back to top button