প্রয়োজনে শতভাগ রেলের টিকিট অনলাইনে

রেলের টিকিট কালোবাজারে বেচাকেনা ঠেকাতে ‘টিকিট যার, ভ্রমণ তার’ বাস্তবায়নের চেষ্টা করা হচ্ছে। প্রয়োজনে শতভাগ রেলের টিকিট অনলাইনে বিক্রির ব্যবস্থা করা হবে। এর ফলে কালোবাজারে টিকিট বিক্রির সুযোগ থাকবে না, এমনটাই বললেন রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন।

শনিবার ১১ জুন পঞ্চগড়ের বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম রেলওয়ে স্টেশনে নবনির্মিত প্রধান ফটক ও সংযোগ সড়ক এবং পঞ্চগড়-সান্তাহার রুটে ‘দেলনচাঁপা এক্সপ্রেস’ আন্তঃনগর ট্রেনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে কথাগুলো বলেন রেলমন্ত্রী।

মন্ত্রী বলেন, ২০২৪ সালের মধ্যে পদ্মা সেতুতে রেল যোগাযোগ ব্যবস্থা চালুর সময় নির্ধারণ করা হয়েছে। আগামী জুন মাসের মধ্যে পঞ্চগড় থেকে কক্সবাজার পর্যন্ত রেল ব্যবস্থা চালু করা হবে।

তিনি আরো বলেন, পঞ্চগড় থেকে বাংলাবান্ধা হয়ে ভারতের সঙ্গে রেল লাইন সংযোগ করা হবে। এতে করে নেপাল ভুটানের সঙ্গে বাংলাদেশ যুক্ত হবে।

বাংলাদেশ রেলওয়ে রাজশাহী বিভাগের মহাব্যবস্থাপক (পশ্চিম) অসীম কুমার তালুকদারের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক মো. জহুরুল ইসলাম এবং জেলা পরিষদ প্রশাসক আনোয়ার সাদাত সম্রাট।

উল্লেখ্য, বর্তমানে ৫০ শতাংশ রেলের টিকিট অনলাইনে কাটার সুযোগ পাচ্ছেন ব্যবহারকারীরা, বাকি ৫০ শতাংশ রেল স্টেশনে গিয়ে সরাসরি কাটা যাচ্ছে।

Back to top button