পুতিন: ঈশ্বরকে ধন্যবাদ, কিছু বিদেশি কোম্পানি রাশিয়া ছেড়েছে

ইউক্রেনে হামলার জেরে পশ্চিমা বিশ্বের নিষেধাজ্ঞা-অবরোধে ভারাক্রান্ত রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন স্রষ্টাকে বিশেষভাবে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। বলেছেন, ঈশ্বরকে ধন্যবাদ। নিষেধাজ্ঞার কারণে বেশ কিছু বিদেশি কোম্পানি রাশিয়া ছেড়ে গেছে।

রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন সাবেক সোভিয়েত রাষ্ট্রগুলোর নেতাদের সাথে ভিডিওকলে কথা বলার সময় পুতিন বলেন, কিছু বিদেশি কোম্পানি রাশিয়া ছেড়ে গেছে, এ কারণে আমি খুবই খুশি। কারণ এখন দেশীয় ব্যবসা তাদের রেখে যাওয়া জায়গাগুলো নিতে পারবে।

ইউক্রেনে চালানো হামলাকে যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে মস্কোর একটি বিদ্রোহ হিসেবে আখ্যা দেন পুতিন। তিনি বলেন, ১৯৯১ সোভিয়েত ইউনিয়নের পতনের পর থেকে যুক্তরাষ্ট্র রাশিয়াকে অপমানিত করে আসছে। এটি তারই সামান্য প্রতিক্রিয়া মাত্র। এ হামলাকে তিনি রুশ ইতিহাসের একটি গুরুত্বপূর্ণ বাঁক বলেও অভিহিত করেন।

গত ফেব্রুয়ারিতে ইউক্রেনে হামলা শুরু হওয়ার পর বিপি থেকে ম্যাকডোনাল্ডস পর্যন্ত অনেক বড় বড় বিদেশি বিনিয়োগকারীরা রাশিয়া থেকে বেরিয়ে গেছে। এসবের কারণে রাশিয়ান অর্থনীতি বেশ চাপের মুখে পড়েছে। তবে বিষয়টিকে রাশিয়ার জন্য ভালো হিসেবেই দেখছেন প্রেসিডেন্ট পুতিন।

তিনি বলেন, কখনো কখনো যারা চলে যায় তাদের দিকে তাকালে ঈশ্বরকে ধন্যবাদ দিতে হয়। কারণ আমরা তাদের জায়গাগুলো দখল করবো। আমাদের ব্যবসা, আমাদের উৎপাদন এরই মধ্যে বৃদ্ধি পেয়েছে। ভিডিওকলে কথা বলার সময় পুতিন বলেন, মার্সিডিজের মতো বিলাসিতাও এখন রাশিয়ায় পাওয়া যাবে, তবে তার দাম আগের তুলনায় কিছুটা বেশি হতে পারে। তবে যারা মার্সিডিজ ব্যবহার করে, এই মূল্যবৃদ্ধিতে তাদের কিছুই আসে যায় না।

রাশিয়াকে বিচ্ছিন্ন করার পশ্চিমা প্রচেষ্টা ব্যর্থ হবে দাবি করে পুতিন বলেন, আমরা নিজেদেরকে বিচ্ছিন্ন করতে যাচ্ছি না। তারা আমাদের ওপর অনেক কিছু চাপিয়ে দিতে চায়, কিন্তু আধুনিক বিশ্বে এটি কেবল অবাস্তব, অসম্ভব।

রুশ প্রেসিডেন্ট আরো বলেন, পশ্চিমারা রাশিয়ার ব্যবসা, ব্যাংকিংয়ের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। এর ফলে তারা রাশিয়াকে বিপাকে ফেলতে চেয়েছিল। কিন্তু মস্কো খুব ভালোভাবেই বিষয়টি মোকাবেলা করেছে। বরং রাশিয়া, চীন, ভারতসহ বেশ কিছু দেশ যুক্তরাষ্ট্রসহ পশ্চিমা বিশ্ব থেকে মুখ ঘুরিয়ে নিয়েছে।

Back to top button