গোপন কক্ষে পোলিং কর্মকর্তার কাজ কি?

কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে। দৈয়ারা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মহিলা বুথের গোপনকক্ষে উঁকি দিতে দেখা গেল এক পোলিং কর্মকর্তাকে।

তবে তিনি পরিচয় জানাতে রাজি হননি। গোপনকক্ষে উঁকি দেয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে ওই পোলিং কর্মকর্তা সাংবাদিকদের বলেন, ‘অনেকেই বয়স্ক ভোটার, যারা ভেতরে গিয়ে ভোট দিতে পারছেন না। তাদের নির্দেশনা দিয়ে সহযোগিতা করছেন। একজন ভোটার না বুঝে ভোট দিতে গিয়ে ১০ থেকে ১৫ মিনিট সময় নিচ্ছেন। এভাবে চলতে থাকলে অর্ধেক বোর্ড কাস্টিং করা সম্ভব হবে না।

এ বিষয়ে ওই কেন্দ্রের প্রিসাইডিং কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম জানান, গোপন কক্ষে এভাবে উঁকিঝুঁকি দেয়ার সুযোগ নেই। তবে ভিতরে গিয়ে কেউ না বুঝলে তাকে বুঝিয়ে দেওয়া হচ্ছে। তিনি আরও বলেন, সব প্রার্থীদের এজেন্ট রয়েছে।

Back to top button