স্বাধীনতার পরে সবচেয়ে বড় অর্জন পদ্মা সেতু : আমু

আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য, কেন্দ্রীয় ১৪ দলের সমন্বয়ক ও মুখপাত্র আমির হোসেন আমু বলেছেন, ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বরের পরে বাঙালি জাতির আরেকটা আনন্দ বিজয়ী উৎসব পালন করতে যাচ্ছে আগামী ২৫ জুন। এই উৎসব হলো, পদ্মা সেতুর উদ্বোধন। স্বাধীনতা অর্জনের পর বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় অর্জন পদ্মা সেতু। গতকাল শনিবার বিকালে ২৩ বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনাকে উদ্দেশ্য করে বিএনপি নেতৃবৃন্দের অশালীন মন্তব্য ও হত্যার হুমকির প্রতিবাদে কেন্দ্রীয় ১৪ দলের উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিল পূর্ব সমাবেশে সভাপতির বক্তৃতায় তিনি একথা বলেন।

আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীর বিক্রমের সঞ্চালনায় সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন এমপি, জাতীয় পার্টির (জেপি) সাধারণ সম্পাদক শেখ শহীদুল ইসলাম, আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম এমপি, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদের সাধারণ সম্পাদক শিরিন আখতার এমপি, সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া, গণআজাদী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট এস কে সিকদার, বাসদের রেজাউর রশীদ খান, গণতন্ত্রী পার্টির ডা. শাহাদাত হোসেন, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু আহমেদ মন্নাফি, জাতীয় পার্টির (জেপি) প্রেসিডিয়াম সদস্য এ এইচ সালাহ উদ্দিন মাহমুদ, সাবেক এমপি রুহুল আমিন, এজাজ আহমেদ মুক্তা, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক খলিলুর রহমান খলিল, এম সালাহউদ্দিন আহমেদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও জাতীয় যুব সংহতির সভাপতি অ্যাডভোকেট এনামুল ইসলাম রুবেল, সহ-সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম প্রধান, শিক্ষা ও ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক মো. মাহফুজ আলম, যুগ্ম প্রচার সম্পাদক মঞ্জুর হাবিব মঞ্জুসহ কেন্দ্রীয় ১৪ দলের নেতারা। সমাবেশ শেষে আগামী ২৫ জুন পদ্মা সেতুর উদ্বোধনকে স্বাগত জানিয়ে আনন্দ মিছিল বের করেন নেতারা। মিছিলটি বঙ্গবন্ধু এভিনিউ থেকে শুরু হয়ে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে গিয়ে শেষ হয়।

পদ্মা সেতু নিয়ে বিএনপি নেতাদের ভিত্তিহীন বক্তব্যের সমালোচনা করে ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন বলেন, পদ্মা সেতু পৃথিবীর বুকে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে থাকবে। আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথিবীর মানুষের কাছে বাঙালি জাতিকে নিয়ে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে থাকবেন।

 জাতীয় পার্টির (জেপি) সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক মন্ত্রী শেখ শহীদুল ইসলাম সব অপশক্তির বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়ে বলেন, অপশক্তিকে আমাদের ঐক্যবদ্ধভাবে রুখতে হবে। সাম্প্রদায়িক রাজনীতি যারা করে, তাদের আগামী নির্বাচনের মধ্য দিয়ে এদেশের রাজনীতি থেকে বিতাড়িত করতে হবে।

Back to top button