জাতি আবার শেখ হাসিনাকেই বেছে নেবে: ১৪ দল

বিএনপি-জামায়াতের ষড়যন্ত্র সত্ত্বেও আগামী নির্বাচনে বাঙালি জাতি আবারও শেখ হাসিনাকেই বেছে নেবে বলে মন্তব্য করেছেন ১৪ দলের নেতারা। তাঁরা বলেছেন, কোনো বিদেশি শক্তি নয়, বাংলার জনগণের বিশ্বাস ও আস্থাই হচ্ছে আওয়ামী লীগসহ ১৪ দলের শক্তির মূল ভিত্তি। বিএনপিসহ ষড়যন্ত্রকারীরা যতই ষড়যন্ত্র-চক্রান্ত করুক, কোনো লাভ হবে না। ২০২৪ সালের জানুয়ারির নির্বাচনের মধ্য দিয়ে জাতি তাদের অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখার স্বার্থে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনাকে আবারও নির্বাচিত করবে। গতকাল শনিবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউর আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্দেশে বিএনপি নেতাদের কটূক্তি ও হত্যার হুমকির প্রতিবাদে ১৪ দলের বিক্ষোভ সমাবেশে নেতারা এসব কথা বলেন। সমাবেশ শেষে আগামী ২৫ জুন পদ্মা সেতুর উদ্বোধনকে স্বাগত জানিয়ে আনন্দ মিছিল বের করেন নেতারা। মিছিলটি বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউ, জিপিও, পল্টন মোড় হয়ে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এসে শেষ হয়। করোনা সংকটসহ নানা কারণে রাজনৈতিক কার্যক্রমে স্থবিরতার পর গতকালের এ সমাবেশ ও আনন্দ মিছিল ছিল রাজপথে ১৪ দলের প্রথম বড় ধরনের কর্মসূচি।

বৃষ্টিবিঘ্নিত আবহাওয়ার মধ্যেও আওয়ামী লীগসহ ১৪ দলের শরিক দলগুলোর বিপুলসংখ্যক নেতাকর্মী সমাবেশ ও আনন্দ মিছিলে যোগ দেন।
সমাবেশে সভাপতির বক্তব্যে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও ১৪ দলের সমন্বয়ক-মুখপাত্র আমির হোসেন আমু এমপি বলেন, পদ্মা সেতু নির্মাণের মধ্য দিয়ে স্বাধীনতার পর বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাঙালি জাতি আরেকটি বিজয় অর্জন করেছে। বিএনপির উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘যারা দেশে থেকে দেশের উন্নয়ন-অগ্রগতির বিরোধিতা করে, পদ্মা সেতুর বিরোধিতা করে, তারা জাতীয় কুলাঙ্গার।’
বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন এমপি বলেন, যখন পদ্মা সেতু উদ্বোধন হতে যাচ্ছে, তখন বহু দাবিদার বহু দাবি নিয়ে আসছেন। একজন বলছেন, ‘খালেদা জিয়া এই সেতুর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছিলেন।’ একই দলের আরেকজন বলছেন, ‘খালেদা জিয়া ইচ্ছা প্রকাশ করেছিলেন।’ সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া সব অপশক্তির বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়ে বলেন, বিএনপি-জামায়াতসহ সব অপশক্তিকে ঐক্যবদ্ধভাবে রুখতে হবে। জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার এমপি বলেন, সব ষড়যন্ত্র মোকাবিলা করে শেখ হাসিনা পদ্মা সেতু নির্মাণ করতে সক্ষম হয়েছেন।
আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও ঢাকা মহানগর ১৪ দলের সমন্বয়ক মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়ার পরিচালনায় সমাবেশে আরও বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম, জাতীয় পার্টি-জেপির সাধারণ সম্পাদক শেখ শহিদুল ইসলাম, গণআজাদী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট এসকে সিকদার, বাসদের আহ্বায়ক রেজাউর রশীদ খান, গণতন্ত্রী পার্টির সাধারণ সম্পাদক ডা. শাহাদাত হোসেন, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু আহমেদ মন্নাফী প্রমুখ।

Back to top button