মুমিনুলকে বাদ দেওয়ার বিষয়ে যা বললেন সাকিব

মুমিনুল হক নেতৃত্ব পাওয়ার পর ২০১৯ থেকে ২০২২ সময়ে বাংলাদেশ দলকে ১৭ ম্যাচে নেতৃত্ব দিয়ে জিতিয়েছেন মাত্র ৩টি ম্যাচ, ড্র ২টিতে। তবে দলের পারফর্ম ছাপিয়ে সামনে আসতে থাকে মুমিনুলের ব্যক্তিগত পারফর্ম।

এরপর বাংলাদেশ দলের নেতৃত্ব ছেড়েছেন, এবার বুঝি দলের জায়গাটাও হারাতে যাচ্ছেন মুমিনুল হক! ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের আগে বাংলাদেশ টেস্ট দলের নেতৃত্ব ছেড়ে নির্ভার হতে ছেয়েছিলেন এই বাঁ-হাতি ব্যাটার। কিন্তু খারাপ সময়টা যেন শেষই হচ্ছে না তার।

অধিনায়কত্ব পাওয়ার পর মুমিনুল পেয়েছেন মাত্র ৩টি শতক। এই সময়ে ডাক মেরেছেন ছয়বার। নেতৃত্বের শেষ ৮ ইনিংসে তো দুই অঙ্কের রানের ঘরই পার হতে পারেননি। এই সময়ে তার ব্যাটে আসে সর্বোচ্চ ৯ রান।

নেতৃত্ব ছেড়েছেন নির্ভার ব্যাটিং করার জন্য। কিন্তু মুমিনুল আর নির্ভার হলেনই-বা কই। ক্যারিবীয় সফরে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ শুরুর আগে তিন দিনের প্রস্তুতি ম্যাচে প্রথম ইনিংসে শূন্য আর দ্বিতীয় ইনিংসে ওপেনিংয়ে ব্যাট করতে নেমে করেন ৪ রান (রান আউট)।

প্রস্তুতি ম্যাচের পারফর্ম যেন টেনে নিয়ে আসেন মূল ম্যাচেও। অ্যান্টিগা টেস্টের প্রথম ইনিংসে শূন্য রানে ফেরার পর দ্বিতীয় ইনিংসে করেন চার রান। এমন পারফরম্যান্সের পর মুমিনুলকে নিয়ে উঠেছে সমালোচনা। উঠেছে বাদ দেওয়ার কথাও। এমন পরিস্থিতিতে কি সিদ্ধান্ত নেবেন সদ্য দায়িত্ব নেওয়া অধিনায়ক সাকিব আল হাসান?

অ্যান্টিগা টেস্ট শেষে মুমিনুলকে সেন্ট লুসিয়া টেস্টের একাদশে রাখা না রাখার প্রশ্নে সাকিব জানিয়েছেন, বাদ দেওয়াতেই সমাধান আসবে না। এটা আমার পক্ষে বলা মুশকিল। কিন্তু যেটা হচ্ছে যে আমার তো ওর সঙ্গে সব সময় কথা হয়। আবারও কথা হবে। ও যদি মনে করে যে হ্যাঁ ওর ব্রেক দরকার আছে সেটা হতে পারে। কিন্তু এখন আমরা আসলে এই মুহূর্তে একটা ম্যাচ শেষ হওয়ার পর কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়াটা বা কোনো কিছু চিন্তা করাটা খুব একটা ভালো কিছু না।’

সিরিজের দ্বিতীয়ত ও শেষ টেস্টের আগে তিন দিন সময় পাচ্ছে বাংলাদেশ দল। সাকিব মনে করছেন, এই সময়ের মধ্যে রয়েছে অনুশীলন। মূলত এই সময়টায় মুমিনুলকে দলে রাখা নিয়ে ভাববেন সাকিব। আমি যেটা বললাম যে পরের দুই তিন দিন বিশ্রাম আছে। এরপর যখন সেন্ট লুসিয়া অনুশীলন করব হয়তো সেদিন আমরা চিন্তা করতে পারব। যে আসলে আমাদের দলের জন্য কোনটা হলে ভালো হতে পারে।’

হঠাৎ পরিবর্তনে খুব বেশি ভালো কিছু হবে না বলেও মনে করছেন সাকিব। তবে টাইগার অধিনায়কের প্রত্যাশা খুব দ্রুতই খারাপ সময় পার করে ভালো সময়ে ফিরবে বাংলাদেশ।

‘পরিবর্তন করলে খুব যে বেশি ভালো কিছু হবে, সেটার নিশ্চয়তাও আপনি দিতে পারবেন না। কারণ যারাই খেলছে আমি যেটা বললাম একটা কথা বলছিলাম আমরা বোধ হয় ১৩/১৪ কত ইনিংসে ১০০ নিচে অল-আউট হলাম। মানে চার উইকেট কিংবা পাঁচ উইকেট হারিয়েছি সো সে জায়গা থেকে চিন্তা করলে তো ওই জায়গাটাতে আমাদের অনেক বেশি সমস্যা হচ্ছে। আমাদের সবাইকে দায়িত্ব নিয়ে এই জায়গা থেকে বের হয়ে আসা সম্ভব, আমি বিশ্বাস করি। আমরা এর আগেও এই জায়গা পড়েছি এবং বেরও হয়েছি।’

সোনালীনিউজ/এমএএইচ

Back to top button