প্রেম ও টিকটক নিয়ে খোলামেলা উত্তর দিলেন দীঘি

বিনোদন ডেস্ক : ছোটবেলা থেকে চলচ্চিত্র ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করছেন প্রার্থনা ফারদিন দীঘি। বেসরকারি একটি মোবাইল ফোন অপারেটরের বিজ্ঞাপনে শিশুশিল্পী হিসেবে অভিনয় করে জনপ্রিয়তা লাভ করেন। বর্তমানে চলচ্চিত্র ও ওয়েব সিরিজেও অভিনয় করছেন। তবে অভিনয়ের বাইরে তাকে নিয়ে প্রেমের গুঞ্জনও কম শোনা যায় না। আবার টিকটকে তার অ্যাক্টিভিটির কারণে বেশ আলোচিত-সমালোচিতও তিনি। প্রেম ও টিকটক নিয়ে খোলামেলা উত্তর দিলেন দীঘি

এই অভিনয়শিল্পী তার প্রেম ও টিকটকের বিষয়ে খোলামেলা কথা বলেছেন। জানালেন, তিনি প্রেম করেন না। আর শুটিং সেটে টিকটকও করেন না। সম্প্রতি ‘চ্যানেল 24’-এর বিনোদনের বিশেষ অনুষ্ঠানে হাজির হয়েছিলেন অভিনয়শিল্পী দীঘি ও চলচ্চিত্র নির্মাতা সুমন ধর। নাজমুল আলম রানার সঞ্চালনায় ক্যারিয়ার ও ব্যক্তিগত বিষয়ে কথা বলেছেন তারা।

দীঘি বলেছিলেন, ‘যদি খারাপ লাগে তাহলে বলবেন, নিজেকে শুধরে নেব’। এই ভাবনা কখন আসলো, সঞ্চালকের এ প্রশ্নের উত্তরে দীঘি বলেন, এই শিক্ষাটা প্রথম থেকেই আসছে। আমি কিন্তু প্রথম কাজ থেকেই আলোচনা-সমালোচনার মধ্যে। আমার আত্মপ্রকাশের পর থেকে মানুষ নেতিবাচকগুলো এত নিয়েছে, যার জন্য আমি প্রস্তুত ছিলাম না। আর শিশুশিল্পী যখন থাকি, তখন নেতিবাচক কেউ দেখে না।

দীঘি বলেন, একজন বাচ্চা মেয়ে অভিনয় করছে, এটাই তো বেশি। সেখানে অনেক বেশি ভালোবাসা পেয়ে আসছি আমি। সেই জায়গা থেকে আমি যখন প্রথম নেতিবাচক বিষয়গুলোর মুখোমুখি হই, তখন মানসিকভাবে ভেঙে যাই। এসবের অর্ধেক কাহিনি ‘শেষ চিঠি’র সেটেই ছিল।

সুমন ধরের কাছে জানতে চাওয়া হয়, পূজা চেরি ও দীঘিকে কিভাবে দেখেন তিনি— জবাবে এই নির্মাতা বলেন, পূজা ওর জায়গা থেকে সেরাটা দিয়ে থাকে। আর দীঘি তার জায়গা থেকে সেরা। দু’জনকে কখনো এক করব না। অভিনয়ের জায়গা থেকে তারা দু’জনই ভালো অভিনয় করেন।

এদিকে প্রেমের বিষয়ে দীঘি বলেন, আমি প্রেম করি না, এটা ডিরেক্টর ভালো জানে। আর টিকটকের ব্যাপারে বলেন, আমি শুটিং সেটে একটাও টিকটক করিনি। তবে কস্টিউমটা পরিহিত থাকা অবস্থায় বাসায় গিয়ে টিকটক করেছেন বলে জানান নির্মাতা সুমন ধর। টিকটক প্রসঙ্গ উঠতেই অভিনেত্রী বলেন, আমি বলছি না টিকটক করা খারাপ। আমাকে যখন কেউ বলে, তুমি সারাদিন টিকটক কেন করো? আমি বলি, টিকটক কে না করে। আপনি টিকটকে গিয়ে দেখেন, কয়জন বাংলাদেশি অভিনেত্রীর আইডি খুঁজে পান। আসলে সবারই তো আছে।

Back to top button