শসা কাটার সময় অনেকে যে ভুলটি করে!

গরমে সুস্থ থাকার জন্য মরসুমি ফলের জুড়ি মেলা ভার। আম, জাম, আনারস, তরমুজের মতো বিভিন্ন জলজাতীয় ফলে এই সময়ে বাজার ছেয়ে যায়। এই ফলগুলি সারা বছর বিশেষ মেলে না।

গরম পড়তেই দেখা পাওয়া যায় এগুলির। সারা বছর শরীর ভাল রাখে কিন্তু শশা। প্রচুর পরিমাণে জল সমৃদ্ধ এই ফল জলের ঘাটতি পূরণ করে। শশা শরীর ভিতর থেকে আর্দ্র রাখে। ফাইবার, অ্যান্টি-অক্সিড্যান্ট এবং অন্যান্য ভিটামিন সমৃদ্ধ শশা শরীর ঠান্ডা রাখতে দারুণ সাহায্য করে। তবে শশা যদি ঠিক পদ্ধতিতে কাটা না হয়, তা হলে খেতে তেতো লাগে। শসা কাটার সময় অনেকে একটি ভুলটি করে! শশা কাটার সময়ে এর গোড়ার অল্প অংশ কেটে ঘষে না নিলে স্বাদ তেতো হয়ে যায়। এই নিয়মটি অনেকে জানলেও কেন এমন হয়, তা অনেকেই জানেন না।

শশায় ‘কিউকারবিটাসিন’ নামে একটি যৌগ থাকে। এই কিউকারবিটাসিনের জন্যই শশার স্বাদ তেতো হয়। কিন্তু শশার গোড়ার অংশটি একটু ঘষে নিলে স্বাদ ঠিক হয়ে যায় কেন? শশা কেটে ঘষলে দেখা যায়, সাদা ফেনার মতো একটি বস্তু ক্রমশ জমছে। এটিই কিউকারবিটাসিন। ঘর্ষণের ফলে যা শশার ভিতর থেকে ক্রমশ বেরিয়ে আসতে থাকে। ফলে যত ক্ষণ ফেনা বেরোচ্ছে, তত ক্ষণ ঘষতে থাকা প্রয়োজন। ফেনা বেরোনো বন্ধ গেলে বুঝবেন, শশা আর তেতো নেই।

Back to top button