প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানালেন সাকিব-তামিম

আজ শনিবার (২৫ জুন) ১২টার দিকে ১৬ কোটি বাঙালির স্বপ্ন পূরণ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান। উন্মোচিত হলো নতুন দিগন্ত। এ যেন বাঙালির স্বপ্ন এবং সাহসের জয়। সেই সঙ্গে খুলে গেল শতসহস্র স্বপ্নের দুয়ার। দেশ-বিদেশের সব আলোচনা-সমালোচনা, ষড়যন্ত্র-কূটমন্ত্রের কড়া জবাব দিয়ে সাহস আর জাতীয় গৌরবের প্রতীক পদ্মা বহুমুখী সেতুর শুভ উদ্বোধন করেছেন তিনি।

আপনার চেহারা থেকে কিভাবে 15 বছর কমিয়ে ফেলবেন তার গোপন সূত্র
আরও জানুন→
Goji Creamএদিকে বিদেশের মাটিতে খেলা নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করলেও বাঙালির স্বপ্নজয়ের উচ্ছ্বাস ছুঁয়ে গেছে দেশের ক্রিকেটারদেরও। সেই সুদৃঢ় ওয়েস্ট ইন্ডিজের সেন্ট লুসিয়ায় বসে কেক কেটে পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উদ্‌যাপন করেছে সাকিব-তামিমরা।

সেখান থেকে এক ভিডিও বার্তায় বাংলাদেশের টেস্ট ক্যাপ্টেন সাকিব আল হাসান বলেন, প্রধানমন্ত্রীকে (শেখ হাসিনা) অসংখ্য ধন্যবাদ। বিশেষ করে দক্ষিণাঞ্চলের মানুষের পক্ষ থেকে। কেননা পদ্মা সেতু দক্ষিণাঞ্চলের মানুষের উন্নয়নের জন্য সবচেয়ে বড় অবদান। পদ্মা সেতু নিয়ে বাঙালি জাতির একটা স্বপ্ন ছিল, যেটা প্রধানমন্ত্রীর মাধ্যমে পূরণ হয়েছে। সে জন্য প্রধানমন্ত্রীকে অসংখ্য ধন্যবাদ। আশা করছি, বাংলাদেশের অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে এই সেতু। এদিকে টিম টাইগার্সের ওডিআই অধিনায়ক তামিম ইকবাল বলেন, বাংলাদেশের জন্য এটা বড় অর্জন। একটা সময় এমন ছিল যে, আমরা নিশ্চিত ছিলাম না, পদ্মা সেতু হবে কি হবে না। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ। কারণ, ওনার একান্ত প্রচেষ্টায় আমরা পদ্মা সেতু পেয়েছি। প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানানো ছাড়াও তামিম আরও স্মরণ করলেন সেই সব মানুষকে, যারা পদ্মা সেতুতে শ্রম দিয়েছেন। তিনি বলেন, পদ্মা সেতুর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সবাই বিশেষ করে শ্রমিকদের ধন্যবাদ। আপনারা যেটা করে দেখিয়েছেন বাঙালি জাতি আজীবন মনে রাখবে।

অন্যদিকে, বিশ্বদরবারে পদ্মা সেতুর গৌরবকে উঁচিয়ে ধরতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে চলমান টেস্ট সিরিজটির নামকরণ করা হয় পদ্মা সেতুর নামে। সিরিজের আনুষ্ঠানিক নাম ‘পদ্মা ব্রিজ ড্রিম ফুলফিলড ফ্রেন্ডশিপ টেস্ট সিরিজ প্রেজেন্টেড বাই ওয়ালটন।’

Back to top button