সরকারি ৩২টি পাটকলের মধ্যে ৩০টিই বন্ধ

দেশে বর্তমানে সরকারি ৩০টি এবং বেসরকারি ৫৫টি পাটকল বন্ধ রয়েছে বলে জানিয়েছেন বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী। সোমবার (২৭ জুন) জাতীয় সংসদের অধিবেশনে মন্ত্রীদের জন্য প্রশ্নোত্তর পর্বে বিরোধী দল জাতীয় পার্টির সদস্য সৈয়দ আবু হোসেনের এক প্রশ্নের লিখিত উত্তরে তিনি এ তথ্য জানান।

পাটমন্ত্রী বলেন, দেশে বর্তমানে সরকারি-বেসরকারি মোট ২৫৩টি পাটকল রয়েছে। এর মধ্যে সরকারি ৩২টি এবং বেসরকারি ২২১টি। সরকারি পাটকল বন্ধ রয়েছে ৩০টি এবং বেসরকারি পাটকল বন্ধ রয়েছে ৫৫টি। সরকারি সিদ্ধান্তের প্রেক্ষিতে বিজেএমসির নিয়ন্ত্রণাধীন বন্ধ ঘোষিত পাটকলসমূহের উৎপাদন কার্যক্রম লিজ বা ইজারা পদ্ধতিতে বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় পুনঃচালু করার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

তিনি বলেন, ইজারার মাধ্যমে সরকারি ২টি পাটকলে উৎপাদন কার্যক্রম বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় চালু হয়েছে। ৯টি সরকারি পাটকল ইজারার জন্য দরদাতার অনুকূলে নোটিফিকেশন অব অ্যাওয়ার্ড (এনওএ) জারি করা হয়েছে। আশা করা যাচ্ছে, শিগগিরই এই পাটকলগুলোতে বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় উৎপাদন শুরু হবে। এছাড়াও দেশে বেসরকারি ১৬৬টি পাটকল চালু রয়েছে।

মন্ত্রী আরও জানান, বিজেএমসির নিয়ন্ত্রণাধীন বন্ধ ঘোষিত পাটকলসমূহের উৎপাদন কার্যক্রম লিজ বা ইজারা পদ্ধতিতে বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় পুনঃচালু করার সিদ্ধান্ত মোতাবেক ২০২১ সালের ৩ নভেম্বর ৪টি এবং চলতি বছরের ১৫ জুন তারিখে ৭টিসহ মোট ১১টি পাটকল লিজ/ইজারা বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে চালুর জন্য নোটিফিকেশন অব অ্যাওয়ার্ড (এনওএ) জারি করা হয়েছে। ইতোমধ্যে ২টি প্রতিষ্ঠানের সাথে লিজ চুক্তি সম্পাদনের প্রেক্ষিতে উৎপাদন চালু হয়েছে। এছাড়াও ৯টি পাটকলের লিজচুক্তি কার্যক্রম অল্পসময়ের মধ্যে সম্পন্ন হবে এবং উৎপাদন কার্যক্রম শুরু করা হবে।

সোনালীনিউজ/আইএ

Back to top button