গরুর অন্ডকোষ রান্না করে খাচ্ছেন এই সুন্দরী যুবতী

নারীর সৌন্দর্য বৃ’দ্ধি করার জন্য কত ধরনের পন্থা অবলম্বন করে। তারা নিজেদের সৌন্দর্য ধরে রাখার জন্য অনেক ধরনের প্রাকৃতিক এবং

কৃত্রিম কসমেটিকস ব্যবহার করে। এবং তারা তাদের সৌন্দর্য ধরে রাখার জন্য এমন অনেক কিছু খেয়ে থাকে যা তাদের সৌন্দর্য ধরে রাখে। সাধারণত পৃথিবীর সকল মানুষই তাদের সৌন্দর্যের পূজারী। তাই তারা তাদের সৌন্দর্য ধরে রাখার জন্য এবং

যে সৌন্দর্য আছে তার থেকে আরো বৃ’দ্ধি করার জন্য তারা বিভিন্ন ধরনের পথ খুঁজে নেয়। কেউ খাবার খেয়ে, কেউ সৌন্দর্য বিভিন্ন ধরনের ক্রিম ইউজ করে। আমর’া আপনাদের এক কোরিয়ান নারীর কথা জানাবো। যে নারী

তার সৌন্দর্য ধরে রাখার জন্য গরুর অন্ডাশয়কে কাবাব বানিয়ে খায়। তার এই অবাক করা এক রেসিপি দেখিয়ে নেট দুনিয়ায় প্রচুর পরিমাণে হট্টগোল লেগে যায়।কারণ কোরিয়ানরা এ ধরনের খাবার তাদের সৌন্দর্য বৃ’দ্ধির জন্য খেয়ে থাকলেও

অন্যান্য দেশের মানুষের কাছে এ ধরনের খাবার একদম অবাক করার বি’ষয় এর মত। কারণ বাংলাদেশে সহ এমন অনেক দেশ আছে যেখানে গরুর অন্ডাশয় বর্জ্য হিসেবে ফেলে দেয়া হয়। তারা এটা যে নিজেদের সৌন্দর্য বৃ’দ্ধি করার জন্য খায় এটি সত্যিই

অকল্পনীয়। চলুন জেনে নেওয়া যাক এই অন্ডাশয় দিয়ে কিভাবে একটি রেসিপি তৈরি করে খাওয়ার উপযোগী করা যায়। গরুর অন্ডাশয় ব্যবহার করে কাবাব বানাতে যা যা প্রয়োজন তা হচ্ছে-

গরুর অন্ডাশয়, পেঁয়াজ কুচি, লবণ, সাদা তেল, মর’িচ গু’ড়া, পাপরিকা পাউডার ইত্যাদি এখন চলুন জেনে নেই ওরা অন্ডাশয়গু’লো কিভাবে আপনি পরিষ্কার করবেন এবং

রান্নার উপযোগী করে কাবাব বানাবেন। প্রথমে আপনাকে অন্ডাশয়গু’লো খুব ভালো করে পরিষ্কার করে ধুতে হবে। এগু’লো ধোয়া হয়ে গেলে এরপরে অন্ডাশয়গু’লোর উপরের যে চামড়া থাকে সেটি ভালো করে ছিঁড়ে ফেলে দিতে হবে। শুধুমাত্র ভেতর অংশটুকু নিতে হবে। এরপর এগু’লোকে ছোট ছোট টুকরা করে নিতে হবে।

এখন এই অন্ডাশয় গু’লো পরিষ্কার পানি দিয়ে ধুয়ে নিতে হবে। এরপর অন্ডাশয় গু’লোতে পেঁয়াজ কুচি এবং লবণ দিয়ে ভালো করে মাখিয়ে রাখতে হবে। এরপর এগু’লো গোলমর’িচ গু’ঁড়া এবং পাপরিকা পাউডার সাথে সামান্য সাদা তেল মিশিয়ে কিছুক্ষণ রেখে দিতে হবে। এখন সেগু’লো ভালো করে ধুয়ে নিতে হবে। এক থেকে দেড় ঘন্টা এগু’লো মাখিয়ে রেস্টের রাখার পর। এগু’লো শিখে গেঁথে নিতে হবে।

যদি এটি ওভেনে বানাতে চান তাহলে আপনার ওভেনটি ফ্রি হিট করে নিতে হবে। আপনি যদি এটি লারকি চুলায় বানাতে চান তাহলে লারকির চুলাতে কয়লা দিয়ে ভালো করে চুলা গরম করে নিতে হবে। এরপর

শিখে গাঁথা অন্ডাশয় গু’লো চুলার উপরে বা ওভেনে দিয়ে ভালো করে পুরিয়ে নিতে হবে। এমনভাবে পুরাতে হবে যাতে বেশি পুড়ে ছাই না হয়ে যায় যাতে সে’দ্ধ হয়। যেমনঃ আমর’া কাবাব খায় সে রকম।

Back to top button