যৌবন ধরে রাখতে ইনজেকশন নিলেন রোনালদো

ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো তার ফিটনেসের দিকে লক্ষ্য রাখে এটা সবারই জানা। ৩৭ বছর বয়সেও মাঠে তিনি দারুণভাবে খেলেন। যৌবন ধরে রাখতে কড়াভাবে তিনি রুটিন মেনে খাদ্যাভ্যাস, শারীরিক চর্চা করেন প্রতিদিন। পর্তুগিজ এই সুপারস্টারের ফিটনেসের রহস্য জানিয়েছে স্প্যানিশ পত্রিকা মার্কা। তার পিছনে রয়েছে বোটিক্স নামক এক ইনজেকশন।

মুখে তিনি এর আগে বেশ কয়েকবার বোটিক্স ইনজেকশন ব্যাবহার করেছেন। মার্কার প্রতিবেদনে জানা গেলো, এইবার যৌনাঙ্গেও তিনি এই ইনজেকশন ব্যাবহার করেছেন। যা কিনা যৌনাঙ্গের পুরুত্ব বৃদ্ধিতে সহায়তা করে। এর ফলে এক থেকে তিন সেন্টিমিটার পর্যন্ত পুরুত্ব বাড়তে পারে গোপনাঙ্গের। যা স্থায়ীত্ব থাকে দুই বছর পর্যন্ত। এই চিকিৎসায় কোন কাটাছেড়ার ঝামেলা নেই।

যদিও এই চিকিৎসা কার্যকর হয় কিনা শেষমেশ, এটা নিয়ে সন্দেহ আছে। মূলত এই পদ্ধতির চিকিৎসায় শরণাপন্ন হয় নীল ছবির তারকারা, যেন তাদের গোপনাঙ্গকে সব দিক থেকে বড় দেখানো যায়।

রোনালদোর বোটিক্স ইনজেকশন প্রীতি অবশ্য নতুন কিছু নয়। এর আগেও শরীরের বিভিন্ন অঙ্গে তিনি বোটিক্স ইনজেকশন ব্যবহার করেছেন। তবে খেলার মাঠে রোনালদোর ভবিষ্যৎ এখনো নিশ্চিত হয়নি। ইউনাইটেড ছেড়ে যেতে চাচ্ছেন চ্যাম্পিয়ন্স লিগ খেলুড়ে কোনো ক্লাবে। তবে এখনো নতুন দলের সন্ধান পাচ্ছেন না।

এদিকে তার বর্তমান দল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ইতোমধ্যেই জানিয়ে দিয়েছে, ক্লাবটি তাকে নিয়েই আগামী মৌসুমের পরিকল্পনা করছে।নতুন কোচ এরিক টেন হাগ সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছেন, রোনালদোর মতো তারকাকে দলে পেতে চান তিনি।

Back to top button