ধোনির শিক্ষায় কোহলি

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টে সাত উইকেটে হারে ভারত। এই ম্যাচে কান্ডজ্ঞানহীন শটে উইকেট বিলিয়ে আসায় সমালোচনার কেন্দ্রে ছিলেন ভারতের উইকেটরক্ষক ব্যাটার ঋষভ প্যান্ট।  প্রথম ইনিংসে মাত্র ১৭ রানের পর দ্বিতীয় ইনিংসে ভারত যখন ম্যাচে ব্যাকফুটে ঠিক তখনি কাগিসো রাবাদার বল ডাউন দ্যা উইকেটে মারতে এসে শূন্য রানেই বিদায় নেন প্যান্ট।

তৃতীয় টেস্ট শুরুর আগে প্রেস কনফারেন্সে বিরাট কোহলিকেও কথা বলতে হয়েছে প্যান্টের দৃষ্টিকটু আউট নিয়ে। কোহলি বলছিলেন, ক্যারিয়ারের শুরু থেকে মহেন্দ্র সিং ধোনি তাকে একটি শিক্ষা দিয়েছিলেন। সেই শিক্ষাই নিজের মধ্যে আঁকড়ে ধরেছেন তিনি।

কোহলি জানান, ধোনি তাকে এক উপদেশ দিয়েছিলেন। আর সেটি হলো দুটি ভুলের মাঝে যেনো অন্তত সাত থেকে আট মাসের মতো ব্যবধান থাকে। ‘ধোনি আমাকে আমার ক্যারিয়ারের শুরুতে দারুণ এক উপদেশ দিয়েছিলো। একটা ভুল থেকে আরেকটা ভুলের মাঝে সাত থেকে আট মাসের গ্যাপ থাকতে হবে। তাহলেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে লম্বা সময় দৌড়াতে পারবে।

আমি এই ব্যাপারটাই আমার মধ্যে নিয়েছি। আমি আমার ভুলগুলো পুনরায় করবো না। আর এটা তখনি সম্ভব যখন আপনি আপনার ভুল শোধরানোর চেষ্টা করবেন। আমি জানি প্যান্ট নিজের মধ্যে উন্নতির চেষ্টা করছে। দলের গুরুত্বপূর্ণ মূহুর্তে নিজের সেরাটা দিবে আশা করি।’

২৪ বছর বয়সেই আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের চতুর্থ বর্ষে আছেন উইকেটরক্ষক ব্যাটার ঋষভ প্যান্ট। শুধু জোহানেসবার্গ টেস্টই নয় এর আগেও ম্যাচের গুরুত্বপূর্ণ সময় নিজের উইকেট দিয়ে এসে সমালোচনার জন্ম দেন প্যান্ট। বিরাট নিজেও জানান ভুল থেকে শিক্ষা নিয়ে নিজেকে দ্রুত শুধরে ফেলাই ভালো।

ভারতের টেস্ট অধিনায়ক জানান, ‘অনুশীলনের সময় ঋষভের সাথে আমাদের কথা হয়েছে। একজন ব্যাটার যখন শট খেলে আউট হয় তখন সে বুঝতে পারে পরিস্থিতি বিবেচনায় সে সঠিক শট খেলেছে নাকি ভুল। আমরা প্রত্যেকেই ক্যারিয়ারে ভুল করি।

তবে এটা বেশ গুরুত্বপূর্ণ যে পরিস্থিতি বুঝতে পারা। আপনার চিন্তা, ভাবনা এবং আপনি কি ধরনের ভুল করছেন। সেই ভুল থেকে শিক্ষা নিয়ে পরবর্তীতে যাতে আর সেই ভুল না হয় সেটাই নিজের মধ্যে উন্নতি করাটাই মূল।’

Back to top button