এভারেস্ট ডিঙিয়েছে পাকিস্তান, বলছেন রমিজ

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম টেস্ট জিততে পাকিস্তানের লক্ষ্য ছিল ৩৪২ রানের। কোনো হিসেব-নিকেশই তাদের পক্ষে ছিল না। এমন এক ম্যাচ ইতিহাস গড়ে জিতে নেয় পাকিস্তান।

পঞ্চম দিনে ৪ উইকেটে পাওয়া জয়ের পথে দুটি রেকর্ড গড়েছে পাকিস্তান। গলে সর্বোচ্চ রান তাড়া করে জিতেছে তারা। এ ছাড়া চতুর্থ ইনিংসে গলে সর্বোচ্চ রানের দলীয় ইনিংসটিও এখন তাদেরই অধিকারে।

গলের স্পিনবান্ধব উইকেটে পাকিস্তান চতুর্থ ও পঞ্চম দিনে যে ব্যাটিং করেছে, সেটাই ক্রিকেট বিশ্বের নজড় কেড়েছে। পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) প্রধান রমিজ রাজাও তাই খেলোয়াড়দের প্রশংসায় ভাসিয়েছেন।

পাকিস্তান দল গলে যেটা করেছে, সেটাকে তিনি দেখছেন পাহাড় ডিঙানোর মতো একটি কীর্তি হিসেবে। রমিজ জানান, ‘বিশ্বকে ভুল প্রমাণ করতে এই পাকিস্তান দলকে পরিসংখ্যানের এভারেস্ট পেরোতে হতো এবং সেটা তারা করেছে! অভিনন্দন বাবর আজম।’

গলের স্পিনবান্ধব উইকেটে টেস্টে চতুর্থ ইনিংসে কখনো ৩০০ রানের বেশি করতে পারেনি কোনো দল। এই ভেন্যুতে চতুর্থ ইনিংসে সর্বোচ্চ দলীয় ইনিংসটা ঠিক ৩০০। ২০১২ সালে ইনিংসটা পাকিস্তান দলেরই ছিল। যদিও ৫১০ রানের লক্ষ্যে ব্যাটিং করে পাকিস্তান হেরেছিল ২০৯ রানে।

এ দুটি রেকর্ড পাকিস্তান ভাঙতে পেরেছে মূলত আবদুল্লাহ শফিকের অনবদ্য ব্যাটিংয়ে। ইনিংস উদ্বোধন করতে নেমে ৪০৮ বলে ৭টি চার ও এক ছয়ে ১৬০ রান করে অপরাজিত ছিলেন শফিক।

রমিজ বলছেন, ‘পাকিস্তান হয়তো আবদুল্লাহ শফিকের মধ্যে পরবর্তী ব্যাটিং মহাতারকা পেয়ে গেছে। খুব শান্ত, ধীরস্থির, গোছানো এবং মানসম্পন্ন।’

Back to top button