মদ খেয়ে গুজরাটে নিহত ১০, আশঙ্কাজনক ১৫

ভারতের গুজরাটের বিভিন্ন স্থানে মদ খেয়ে কমপক্ষে ১০ জন প্রাণ হারিয়েছেন। এছাড়া হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন আরও ২০ জন, যাদের মধ্যে ১৫ জনের অবস্থা গুরুতর। বিষয়টি নিয়ে উঠে পড়ে লেগেছে সেখানকার পুলিশ। তদন্তে নিয়োগ দেয়া হয়েছে গুজরাটের সন্ত্রাস দমন শাখা এটিএস-কে। এ খবর দিয়েছে হিন্দুস্তান টাইমস।

খবরে জানানো হয়, বিষাক্ত মদ খেয়ে যারা মারা গেছেন তারা মূলত শ্রমিক বা দিনমজুর। সোমবার রাতে বোতাড়ের পুলিশ সুপার করণরাজ বাঘেলা বলেন, আমাদের কাছে যা খবর এসেছে, তাতে বোতাড় জেলার পাঁচজন এবং আমদাবাদ জেলায় ধনধুকা তালুকার কাছে দুটি গ্রামের পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। বিভিন্ন হাসপাতালে প্রায় ২০ জনের চিকিৎসা চলছে। বেশিরভাগ অসুস্থ ব্যক্তি ভাবনগরের স্যার তখতসিংজি হাসপাতালে ভরতি আছেন। কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

বোতাড়ের পুলিশ সুপার জানিয়েছেন, ইতিমধ্যে অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা দায়ের করা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য কয়েকজনকে আটক করা হয়েছে।

তিনি বলেন, প্রয়োজন পড়লে হত্যা মামলাও করা হবে। অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করেই পুলিশ থেমে নেই। তারা এখন এটিএস এবং আমদাবাদ ক্রাইম ব্র্যাঞ্চ-কে নিয়ে তদন্তে নেমেছে। গুজরাটে সাধারণত মদ কেনা বেচা হয় না। তারপরও সেখানে এই মদ-কাণ্ড ঘটলো। এরইমধ্যে গুজরাট পুলিশের ডিজি আশিস ভাটিয়া জানিয়েছেন, বোতাড় জেলার তিনজনকে আটক করা হয়েছে। ওরাই বিষাক্ত এই মদ বিক্রি করত বলে অভিযোগ উঠেছে।

Back to top button