সরকার দেশকে দুর্ভিক্ষের দিকে নিয়ে যাচ্ছে: মান্না

জ্বালানি তেল এবং পরিবহন ভাড়া অস্বাভাবিকভাবে বৃদ্ধির প্রতিবাদ জানিয়ে নাগরিক ঐক্যের সভাপতি মাহমুদুর রহমান মান্না বলেছেন, লুটপাট করে দেশকে ফোকলা করে ফেলেছে আওয়ামী লীগ সরকার। এখন তারা দেশকে একটি দুর্ভিক্ষের দিকে নিয়ে যাচ্ছে। তাই এদের ক্ষমতায় থাকার কোন অধিকার নেই।

জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদ জানিয়ে রোববার এক বিবৃতিতে তিনি এসব কথা বলেন।
মান্না বলেন, এই সরকার অগণতান্ত্রিক। ভোট ডাকাতি করে তারা ক্ষমতায় এসেছে। তাই তারা জনগণের দুঃখ কষ্টের কথা ভাবে না। সীমাহীন দুর্নীতি, লুটপাট, অর্থ পাচারের মাধ্যমে তারা দেশের অর্থনীতিকে ধ্বংস করে দিয়েছে। তারা দেশের ব্যাংকগুলো খালি করেছে, শেয়ারবাজার ধ্বংস করেছে, বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ খালি করে ফেলেছে, লক্ষ লক্ষ কোটি টাকা বিদেশে পাচার করেছে। তাদের কাছে দেশ চালানোর টাকা নেই, আমদানির জন্য রিজার্ভ নেই। তাই এখন তারা জনগণের পকেট কাটার পায়তারা করছে। তাদের লুটপাটের চাপ জনগণের ঘাড়ে চাপাচ্ছে।

তিনি বলেন, অসহনীয় দ্রব্যমূল্যের চাপে পিষ্ট জনগণের উপর জ্বালানি তেলের অস্বাভাবিক মূল্য এবং বর্ধিত পরিবহন ভাড়ার খড়গ চাপানো প্রমাণ করে এই সরকার জনগণের তোয়াক্কা করে না। গণবিরোধী এই সরকারকে এখনি হঠাতে না পারলে দেশের মানুষকে বাঁচানো যাবে না।

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার দূরত্ব আর মাত্র ২৯ পয়সা। শ্রীলঙ্কায় ডিজেলের দাম বাংলাদেশি টাকায় ১১৪ টাকা ২৯ পয়সা। আর বাংলাদেশে ১১৪ টাকা। শ্রীলঙ্কায় কেরোসিনের দাম ২৩ টাকা আর বাংলাদেশে ১১৪ টাকা। অবৈধ ক্ষমতাসীনরা দেশলে খাঁদের কিনারায় নিয়ে গেছে।

জনগণের উদ্দেশ্যে মান্না বলেন, এই দানব সরকারকে পদত্যাগে বাধ্য করতে হলে আপনাদের রাস্তায় নামতে হবে। সকল বিরোধী শক্তি এবং জনগণের ঐক্যবদ্ধ গণ আন্দোলনের মাধ্যমে এই সরকারকে উৎখাত করতে না পারলে দেশ বাঁচানো যাবে না, দেশের অর্থনীতিকে বাঁচানো যাবে না, দেশের মানুষকে বাঁচানো যাবে না।

Back to top button