লম্বা নাকি খাটো কাদের রোগের ঝুঁকি বেশি?

আমাদের সমাজে বিভিন্ন ধরনের মানুষ বসবাস করে। এর মধ্যে কেউ খাটো কেউ লম্বা। মূলত আর্থ-সামাজিক অবস্থান ও জিনগত বিষয়ের উপর নির্ভর করে একজন মানুষের উচ্চতা। তবে অনেকেরই জানা নেই যে, উচ্চতা ও বিভিন্ন রোগের মধ্যেও সম্পর্ক রয়েছে।

এমনটিই জানা গেছে সাম্প্রতিক এক গবেষণায়। উচ্চতার উপর নির্ভর করে আপনার স্নায়ুব্যাধি, ত্বকে ইনফেকশন কিংবা হৃদরোগের ঝুঁকি আছে কি না? গবেষণায় দেখা গেছে, শারীরিক উচ্চতার সঙ্গে প্রায় ৫০টি রোগের সম্পর্ক আছে।

কলোরাডো বিশ্ববিদ্যালয়ের শ্রীধরন রাঘবন ও তার সহকর্মীরা মার্কিন সশস্ত্র বাহিনীর ৩ লাখ ২৩ হাজার ৭৯৩ প্রাক্তন সদস্যদের কাছ থেকে তথ্য বিশ্লেষণ করেন। যারা জিন, পরিবেশগত কারণ ও রোগের মধ্যে সংযোগ আছে কি না তা খুঁজে বের করতে একটি গবেষণা প্রোগ্রামে নাম নথিভুক্ত করেছিলেন।

দলটি ৩ হাজার ২৯০টি জিনের রূপ দেখেন, যা উচ্চতা ও ১০০০টিরও বেশি ক্লিনিকাল বৈশিষ্ট্যের সাথে তাদের সংযোগকে প্রভাবিত করতে পারে।গবেষণায় দেখা গেছে, যাদের উচ্চতা বেশি তারা অ্যাট্রিয়াল ফাইব্রিলেশন, হৃদস্পন্দন ও রক্ত সঞ্চালনের সমস্যায় বেশি ভোগেন।

এমনকি যে লম্বা হওয়ার সাথে যুক্ত জিন স্নায়ুর ক্ষতি, ত্বক ও হাড়ের সংক্রমণের ঝুঁকিও বাড়ায়। এছাড়া পায়ে ও পায়ের পাতায় আলসারের সমস্যাও দেখা দিতে পারে লম্বা মানুষের মধ্যে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, যারা উচ্চতা বেশি তারা সবার কাছে আকর্ষণীয় হলেও এমন মানুষের মধ্যে দেখা দেয় নানা শারীরিক সমস্যাও। যা খাটো মানুষদের মধ্যে কম দেখা দেয়। তাই লম্বা মানুষদেরকে নিয়মিত মেডিকেল চেকআপ করার পরামর্শ দেন গবেষকরা।

সূত্র: নিউজ সায়েন্টিস্ট

Back to top button