একদিনের ব্যবধানে সেই ইউএনওকে দুই স্থানে বদলি

খেলার মাঠে আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর নির্মাণ নিয়ে আলোচনায় আসা নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মাহমুদা বেগমকে একদিনের ব্যবধানে দুই স্থানে বদলি করা হয়েছে। গত বুধবার (২৪ আগস্ট) ময়মনসিংহ বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ের জ্যেষ্ঠ সহকারী কমিশনার মো. খবিরুল আহসান সই করা এক প্রজ্ঞাপনে তাকে কেন্দুয়ার পাশের উপজেলা মদনে বদলি করা হয়।

এর একদিনের ব্যবধানে গত বৃহস্পতিবার জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের মাঠ প্রশাসন-২ শাখার উপ-সচিব কে এম আল-আমীন সই করা এক প্রজ্ঞাপনে তাকে চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে পদায়নের লক্ষ্যে ন্যস্ত করা হয়। শনিবার (২৭ আগস্ট) নেত্রকোনার জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ নিশ্চিত করেছেন।

ময়মনসিংহ বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, গত বুধবার নেত্রকোনার কেন্দুয়া, মদন ও খালিয়াজুরি, এই তিন উপজেলার ইউএনওকে বদলি করা হয়। তাদের মধ্যে কেন্দুয়ার ইউএনও মাহমুদা বেগমকে মদনে, মদনের ইউএনও আবুল কালাম মো. লুৎফর রহমানকে ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায় পদায়ন করা হয়েছে।

এছাড়া কেন্দুয়ায় নতুন ইউএনও হিসেবে বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ে যুক্ত কাবেরী জালালকে আর খালিয়াজুরিতে বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ে যুক্ত মো. এরশাদুল আহমেদকে পদায়ন করা হয়। কিন্তু পরে একদিনের ব্যবধানে বৃহস্পতিবার ইউএনও মাহমুদা বেগমকে চট্টগ্রামে বদলি করা হয়।

সম্প্রতি কেন্দুয়া উপজেলার বলাইশিমুল গ্রামে ১ একর ৮৭ শতক জমির মধ্যে খেলার মাঠের ৪৬ শতক জায়গা কান্দা শ্রেণিতে পরিবর্তন করে সেখানে আশ্রয়ণ প্রকল্প-২-এর আওতায় গৃহহীনদের ঘর নির্মাণের কাজ চালিয়ে ইউএনও মাহমুদা বেগম আলোচনায় আসেন।

Back to top button